নুরুজ্জামান 'লিটন' - (Naogaon)
প্রকাশ ১৩/০৪/২০২২ ০৯:০৯পি এম

নওগাঁয় তুচ্ছ ঘটনার মারামারিতে বৃদ্ধের মৃত্যু

নওগাঁয় তুচ্ছ ঘটনার মারামারিতে বৃদ্ধের মৃত্যু
ad image
নওগাঁ জেলার মহাদেবপুরে জমির উপর দিয়ে মসজিদের ছাদ ঢালাই কাজের জন্য ট্রলিতে করে বালি পরিবহণের জের ধরে সৃষ্ট মারামারিতে আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাবুদ আলী (৭৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।

রাজশাহীর পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। তিনি উপজেলার এনায়েতপুর ইউনিয়নের মহিনগর দীঘিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

এ ব্যাপারে বিকেলে থানায় মামলা দায়ের করা হলে মধ্যরাতে থানা পুলিশ ৪ সহোদরকে জনকে আটক করে। এই ঘটনায় আরও ৫ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশংকাজনক। আটক চার সহোদর হলেন মহিনগর গ্রামের মৃত আফজাল মাস্টারের ছেলে রেজাউল করিম ভুট্টু (৫৭), আবু হেলাল (৫০), বেলাল হোসেন (৪৭) ও মামুনুর রশীদ (৪২)।

নিহতের পরিবার ও থানা সূত্রে জানা যায়, মহিনগর দিঘীপাড়া গ্রামের মসজিদের ছাদ ঢালাইয়ের জন্য সোমবার দুপুরে ট্রলিতে করে বালু নেওয়া হচ্ছিল।

এ সময় আফজাল হোসেনের চার ছেলে তাদের জমির ওপর দিয়ে বালু পরিবহণে নিষেধ করেন। জোহরের নামাজের পর মসজিদ থেকে বের হয়ে মাবুদ আলী ও আব্দুল আজিজ নামে দুই মুসল্লি এর প্রতিবাদ করেন। ফলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির সূত্রপাত ঘটে। এক পর্যায়ে তারা কোদাল ও সুরকি নিয়ে মারামারিতে লিপ্ত হন।

এতে উভয় পক্ষের ৭ জন আহত হন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। সেখানে মাবুদ আলী ও আব্দুল আজিজের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পরে তাদেরকে আইসিইউ এর জন্য রাজশাহীর পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরে মাবুদ আলী মারা যান। মাথায় রক্ত জমাট বেঁধে থাকায় আব্দুল আজিজের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

মহাদেবপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, এ ব্যাপারে নিহতের স্ত্রী রাবেয়া বেগম বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে থানায় একটি মামলা দায়ের করলে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় গোপন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টায় রাজশাহী থেকে চার ভাইকে আটক করা হয়।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ