Monir
প্রকাশ ২৬/০২/২০২২ ১২:১৬পি এম

বাজারে ৪০ টাকা কেজির নিচে কোনো সবজি নেই

বাজারে ৪০ টাকা কেজির নিচে কোনো সবজি নেই
ad image
প্রতিদিনই বাড়ছে সবজির দাম। রাজধানীর বাজারগুলোতে ৪০ টাকা কেজির নিচে কোনো সবজি মিলছে না। মৌসুম হিসেবে আলুর দাম কম থাকলেও সেটিও ২০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। বেড়েছে মুরগির দামও।

গতকাল রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, কক বা সোনালি মুরগির দাম কেজিতে ৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। পিঁয়াজের দাম বেড়ে ৪৫ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ছোট ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে প্রতিটি ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। আর বড় ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকায়। পাতাকপি প্রতিটি ৩০ থেকে ৪০ টাকায় কিনতে হচ্ছে ভোক্তাদের। টমেটোর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়। শিমের কেজি ৬০ থেকে ৭০ টাকা, ওলকপির কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকায়। লাউ প্রতিটি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকায়। লালশাকের আঁটি ১০ থেকে ১৫ ও পালংশাকের আঁটি বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। বেগুনের কেজি ৫০ থেকে ৭০ ও গাজর বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ৩০ টাকা। মুলার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা। কাঁচকলার হালি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা। সাদা মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৬৫ টাকা। সোনালি মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৯০ থেকে ৩২০ টাকা। যা গত সপ্তাহে ছিল ২৬০ থেকে ২৯০ টাকা। ব্যবসায়ীরা বলছেন, বিধিনিষেধ না থাকায় মুরগির চাহিদা বেড়েছে। মাছ বাজার ঘুরে দেখা গেছে, রুই মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৮০ থেকে ৪৫০ টাকা। একই দামে বিক্রি হচ্ছে কাতলা মাছ। শিং ও টাকি মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকা। শোলের কেজি ৪০০ থেকে ৬৫০ এবং তেলাপিয়া ও পাঙাশ মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ১৭০ টাকা। কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা। ছোটগুলো বিক্রি হচ্ছে ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা কেজি দরে। নলা মাছ বিক্রি হচ্ছে ১৭০ থেকে ২০০ ও চিংড়ি বিক্রি হচ্ছে ৬০০ থেকে ৬৫০ টাকা কেজি।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ