Monir
প্রকাশ ২২/০২/২০২২ ০১:৪২পি এম

পাঁচ ভাইয়ের পর রক্তিমও না ফেরার দেশে

পাঁচ ভাইয়ের পর রক্তিমও না ফেরার দেশে
ad image
কক্সবাজারের চকরিয়ায় পিকআপ চাপায় ৫ ভাইয়ের মৃত্যুর ১৪ দিন পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রক্তিম শীলও (৩৫) চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এনিয়ে একই পরিবারের ৬ ভাই সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলেন।

রক্তিম শীলের ভগ্নিপতি খগেশ চন্দ্র মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অপর আহত বোন হীরা শীল এলনও মালমুঘাট মেমোরিয়াল খ্রীস্টান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের মালুমঘাট এলাকায় পিতার শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফেরার পথে পিকআপ চাপায় একসাথে ৫ ভাই ঘটনাস্থলে মারা যায়।

এ ঘটনায় রক্তিমের ছোট ভাই প্লাবন সুশীল (২৪) বাদী হয়ে পিকআপ চালককে আসামি করে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে র‌্যাব-১৫ এর একটি দল ঢাকা থেকে চালক সাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার করেন। তাকে চকরিয়া সিনিযর জুডিসিয়াল ম্যজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থাপন করা হলে বিচারক তাকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

মৃত্যুর খবর পেয়ে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুল ইসলাম আদর নিহতদের বাড়িতে গিয়ে নিহতদের পরিবার ও মা মৃণালীনি বালা সুশীলকে শান্তনা দেন। এসময় তিনি তার পক্ষ থেকে যাবতীয় সহায়তা দেয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন।
কান্নাজড়িত কণ্ঠে মা মৃণালীনি বালা সুশীল বলেন, আমার পরিবারে আর উপার্জনক্ষম কেউ রইল না। আমার বেঁচে থেকে এখন কি হবে। আমি এখন কি নিয়ে বেঁচে থাকব। চোখের সামনে শুধু অন্ধকার ছাড়া আর কিছু নেই।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ