Manir Ahmed Azad - (Chattogram)
প্রকাশ ১৭/০২/২০২২ ০৮:১৮পি এম

অজানা আগুনে ঘর পুড়েছে, পুড়েছে অবলা এক নারীর কপাল!

অজানা আগুনে ঘর পুড়েছে, পুড়েছে অবলা এক নারীর কপাল!
ad image
চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড জঙ্গলী পীর পাড়ায় অগ্নিকান্ডে এক অসহায় পরিবারের বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত মহিলার নাম লায়লা বেগম। তিনি ওই এলাকার অলী আহমদের স্ত্রী। গতকাল বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটে। স্হানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, লায়লা বেগম ছোট্ট টিন-বেড়ার ঝুপড়ি ঘরে বসবাস করতেন।

তিনি প্রতিদিনের ন্যায় সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জীবিকার তাগিদে পাহাড়ে লাকড়ি সংগ্রহের চলে যায়। এ সময়ে তার বসতঘরে আগুন লাগে ভষ্মিভূত হয়। আশেপাশের লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে আসলেও ঘরটি রক্ষা সম্ভব হয়নি। মুহুর্তের মধ্যে তার ঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুনে ঘরের প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র সহ ভিক্ষার ২০ কেজি চাউল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

বর্তমানে তিনি খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন। ক্ষতিগ্রস্তের দাবি পুর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষ লোকজনে কেউ আগুন লাগিয়ে পুড়ে দিয়েছে। তবে স্হানীয়দের ধারণা-রান্না ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত লায়লা বেগম জানান, আমার সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। আমার একমাত্র মাথা গোঁজার স্থানটি হারিয়েছি। আমার কেউ নেই। আমি পাহাড়ে গিয়ে কিছু লাকড়ি কেটে সেগুলো বিক্রী করে সংসার চালায়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বড়হাতিয়া ইউপির চেয়ারম্যান বিজয় কুমার বড়ুয়া। তিনি তাৎক্ষণিক ক্ষতিগ্রস্হ মহিলাকে কম্বল ও নগদ অর্থ প্রদান করেন। লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুহাম্মদ আহসান হাবীব জিতু জানান, এ বিষয়ে স্হানীয় চেয়ারম্যান সাহেব আমাকে অবগত করেছেন। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহযোগিতা প্রদান করা হবে। লায়লা বেগম এলাকার বিত্তশালী লোকজনের নিকট তার পাশে আর্থিক সহযোগিতা এগিয়ে আসার আহবান জানান।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ