Md. Shajahan kobir - (Mymensingh)
প্রকাশ ১২/০১/২০২২ ১০:৫৬পি এম

Mymensingh: ভিডিও ফুটেজসহ চুরির অভিযোগ আমলে নেয়নি গৌরীপুর থানা পুলিশ !

Mymensingh: ভিডিও ফুটেজসহ চুরির অভিযোগ আমলে নেয়নি গৌরীপুর থানা পুলিশ !
ad image
ময়মনসিংহের গৌরীপুর প্রেসক্লাব কেন্টিনে চুরির ঘটনায় সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজসহ থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হলেও অজ্ঞাত কারনে সেই অভিযোগ আমলে না নেয়ার অভিযোগ ওঠেছে গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জের বিরুদ্ধে।

এদিকে চুরি সংঘটিত হওয়ার প্রমাণসহ অভিযোগ জমা দেয়ার এক মাস অতিবাহিত হলেও চোর শনাক্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা কোন তৎপরতা না থাকায় হতাশায় ভুগছেন প্রেসক্লাব কেন্টিনের ভুক্তভোগী পরিচালক।

চোরের সঙ্গে পুলিশের এমন সখ্যতায় বর্তমানে স্থানীয় সাংবাদিক ও সচেতন মহলে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

গৌরীপুর প্রেসক্লাব কেন্টিনের পরিচালক জাহাঙ্গীর হোসেন আমিনুল জানান, গত২০২১ সালের ২ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে কেন্টিনের কফি মেশিনটি চুরি হয়। ঘটনার পর প্রেসক্লাবের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে অজ্ঞাত ব্যক্তি কেন্টিনে তালা অভিনব কায়দায় খুলে ভেতরে ঢুকে কফি তৈরীর মেশিন নিয়ে
যায়। এখানে উল্লেখ্য অজ্ঞাত চোর ব্যক্তিটি ঘটনারদিন রাতে স্থানীয় দুই ব্যক্তির সঙ্গে প্রেসক্লাব কেন্টিনের সামনে সন্দেহজনকভাবে ঘুরাফেরা করতে দেখা গেছে।

তিনি আরও বলেন, এ চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে প্রথমে অভিযোগ গ্রহন করতে অপারগতা প্রকাশ করেন পুলিশ। পরবর্তীতে সাংবাদিকদের তোপের মুখে ১২ ডিসেম্বর সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজসহ লিখিত অভিযোগ গ্রহন করেন গৌরীপুর থানার পুলিশ। কিন্তু অভিযোগ গ্রহনের এক মাস অতিবাহিত হলেও চোর শনাক্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনে কোন তৎপরতা নেই পুলিশের।

এ বিষয়ে গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী চলতি মাসে আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় এ বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে চোরের ছবি স্পষ্ট নয়, তাই চোর শনাক্ত করা যায়নি। চোর ব্যক্তিটি সন্দেহজনকভাবে যে দু’জন স্থানীয় ব্যক্তির সঙ্গে ঘুরাফেরার দাবি ওঠেছে, সেই দুজন ব্যক্তি সাংবাদিক। তাদেরকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করাটা মানহানিকর বিষয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ