Asif Billah - (Sunamganj)
প্রকাশ ০৭/০১/২০২২ ০১:৪৫পি এম

Electoral violence: সাচনা বাজারে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় ৫ জন আহত

Electoral violence: সাচনা বাজারে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় ৫ জন আহত
ad image
৫ জানুয়ারি ( বুধবার) ৫ম ধাপে অনুষ্ঠিত হয়েছে সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার ৪নং সাচনা বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ৷ এই নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা দেখা দিয়েছে ৷

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় যে, ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী মোরগ প্রতীকের মো: আজিজুর রহমান হেরে যাওয়ায় ৫ জানুয়ারী বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় তার সমর্থকগন ১নং ওয়ার্ডের রাধানগর গ্রামে প্রতিপক্ষ বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকের প্রার্থী উসমান গনির বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় হামলায় এক মহিলাসহ ৫জন গুরুতর আহত হন। আহতরা হলেন রাধানগর গ্রামের ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকের প্রার্থী মো: উসমান গনীর স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৩৫), জয়নাল আবেদীনের পুত্র সফি মিয়া(২৫), পিয়াস উদ্দিনের ছেলে কারী আব্দুল কাইয়ূম (৬৫), মৃত তরিব উল্লার ছেলে আবু বকর (৩৮) এবং আফতাউজ্জামান (৫০)। আহতদের মধ্যে মনোয়ারা বেগম ও সফি মিয়ার অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় তাদের সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের স্থানীয় চিকিৎসা দেওয়া হয়। 

প্রতক্ষ্যদর্শী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায় ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেন আজিজুর রহমান তিনি মোরগ প্রতীক নিয়ে ১৮৬ ভোট পান এবং উসমান গনী বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক নিয়ে ১৮৭ ভোট পান। দুই জনেই নির্বাচনে পরাজয় বরণ করেন। নির্বাচনে হেরে আজিজুর রহমানের সমর্থকগন উসমান গণীর বাড়িতে হামলা করেন। বিষয়টি সাথে সাথে জামালগঞ্জ পুলিশকে অবগত করা হলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ৷ এসময় হামলাকরীরা মনোয়ারা বেগমকে কুপিয়ে মৃত ভেবে পালিয়ে যায়। পরে এলাকা বাসীর সহযোগিতায় আহত মনোয়ারা বেগমকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ  সদর হাসপাতলে পাঠানো হয়।বর্তমানে আহত মনোয়ারা চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন ।

এব্যপারে জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মির মো: আব্দুন নাসের জানান বিষয়টি শুনেছি ৷ লিখিত অভিযোগ পেলেই হামলাকারীদের বিরোদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ৷

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ