Verified আই নিউজ বিডি ডেস্ক
প্রকাশ ০৫/০১/২০২২ ০২:৩৯পি এম

Cricketer Ebadat: ভলিবল খেলোয়াড় থেকে ক্রিকেটার ইবাদত

Cricketer Ebadat: ভলিবল খেলোয়াড় থেকে ক্রিকেটার ইবাদত
ad image
মৌলভীবাজারে ছেলে ইবাদত। তার বাবা চাকরি করতেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি)। একই পথ বেছে নিয়ে আকাশ প্রতিরক্ষায় যোগ দিয়েছিলেন ইবাদত। কাজ শুরু করেন বিমানবাহিনীতে।

তবে খেলার মাঠ ইবাদতকে খুব টানে। বিমানবাহিনীর নিয়মিত ভলিবল খেলতেন। কিন্তু তাতে মন ভরে না। মন পড়ে থাকে ক্রিকেট মাঠে। প্রতিপক্ষের ব্যাটারকে ঘায়েল করাই যেন সুখ খুঁজে পান এই প্রতিভাবান। তার কোনো খেলায় বাঁধা দেয়নি বিমানবাহিনী।

২০১৪ সালে সিটি ক্লাবের হয়ে ঢাকায় প্রথম বিভাগ ক্রিকেট খেলার সুযোগ পান ইবাদত।

এর পর ক্রিকেটপাড়ায় ছড়াতে থাকে তার নাম। এ দুই বছর পর, স্বপ্নপূরণের প্রথম সিঁড়িতে পা রাখেন তিনি। একটি মোবাইল অপারেটর কোম্পানির প্রতিভা বাছাই কার্যক্রমে অংশ নিয়ে চমকে দেন সবাইকে। শেষ রাউন্ডে ১৩৯.০৯ কিলোমিটার গতিতে বল করেন এই পেসার।

ডাক পান বিসিবির হাই পারফরম্যান্স ক্যাম্পে। বছরের শেষ দিকে নিউজিল্যান্ড সফরে যান ডেভেলপমেন্ট স্কোয়াড়ের সদস্য হিসেবে। অনেকটা ভেলকিবাজির মতো প্রবেশ করেন ক্রিকেটের রঙিন দুনিয়ায়।

এর পরও থেমে থাকেননি। ধীরে ধীরে উন্নতি করেছেন নিজের বোলিংকে। এ সময়ে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) দল পেয়েও ছিলেন বেঞ্চে।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৯ ম্যাচে শিকার করেন ৫৯ উইকেট। আর বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল) পাঁচ ম্যাচে ২১ উইকেট নিয়ে আলোচনায় আসেন নির্বাচকদের। সবশেষ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের পারফরম্যান্স। তাসকিন আহমদের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের কারণে পুরো মৌসুম বেঞ্চে বসে কাটাতে হয় তাকে। দলের শেষ ম্যাচে একাদশে সুযোগ পেয়ে নিজেকে রাঙিয়ে তোলেন ইবাদত।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ