KAMRUL ISLAM KAMAL
প্রকাশ ০২/০১/২০২২ ১০:২৬পি এম

Narsingdi: ঘোড়াশালে বোতল তৈরির কারখানায় দুর্ঘটনায় কর্মকর্তা নিহত

Narsingdi: ঘোড়াশালে বোতল তৈরির কারখানায় দুর্ঘটনায় কর্মকর্তা নিহত
ad image
নরসিংদীর পলাশের ঘোড়াশালে একটি প্ল­াস্টিকের বোতল তৈরির কারখানায় দুর্ঘটনায় এক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঘোড়াশাল কনটেনার্স লিমিটেড নামের ওই কারখানার ভেতরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। রোববার সকালে কারখানাটির জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) আশরাফুল আলম দুর্ঘটনায় মো. মোশাররফ হোসেনের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহত ওই কর্মকর্তার নাম মো. মোশাররফ হোসেন (৪৫)। তিনি ভোলার লালমোহন উপজেলার বালুয়ার চর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে। স্ত্রী ও তিন সন্তান নিয়ে গাজীপুরের কাশিমপুরের এনায়েতপুর গ্রামে বসবাস করতেন তিনি। মো. মোশাররফ হোসেন ওই কারখানাটির প্রোডাকশন ম্যানেজার ছিলেন।

নিহতের স্বজন ও কারখানা সূত্রে জানা গেছে, এক সপ্তাহ আগে ওই কারখানায় প্ল­াস্টিকের বোতল তৈরির একটি নতুন মেশিন স্থাপন করা হয়। শনিবার বিকেলে ওই মেশিনটি উৎপাদনের জন্য উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের ৩ ঘণ্টা পর ওই মেশিনে প্ল­াস্টিকের বোতল তৈরির সময় দুর্ঘটনা ঘটে। ওই সময় কারখানাটির প্রোডাকশন ম্যানেজার মোশাররফ হোসেন বোতল তৈরির কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করছিলেন। এক পর্যায়ে তাঁর মাথা ওই মেশিনে লেগে যায়। এতে গুরুতর আহত হয়ে মো. মোশাররফ হোসেন কারখানার ফ্লোরে লুটিয়ে পড়েন। পরে উপস্থিত শ্রমিক-কর্মকর্তারা তাকে উদ্ধার করে কারখানার নিজস্ব গাড়ি দিয়ে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন মেডিকেলে কলেজে নিয়ে যান। পরে রাত ৮টায় হাসপাতালটির কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কারখানাটির জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) আশরাফুল আলম জানান, প্ল­াস্টিকের বোতল তৈরির একটি নতুন মেশিন উদ্বোধন করার তিন ঘণ্টা পরই এই দুর্ঘটনা ঘটে। এমন দুঃখজনক ঘটনার জন্য আমরা প্রস্তুত ছিলাম না।

পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইলিয়াছ জানান, কারখানার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে দেখা গেছে, দুর্ঘটনায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে কোন লিখিত অভিযোগ আমরা পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনাগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ