জাকারিয়া হোসেন হিমেল( - (Gazipur))
প্রকাশ ২৬/১১/২০২১ ০৬:৫৪পি এম
১. সব সরকারের সময়ই উন্নয়ন বরাদ্দ এসেছে। কিন্তু সেগুলোর ফুটো কানাকড়ির দেখাও পায় নি গাজীপুরবাসী। আমি অন্তত এর আগে আজো পর্যন্ত একটা বাতি লাগাতেও দেখিনি কোথাও। তবে মেয়র হিসেবে জনাব জাহাঙ্গীর আলম গত পঞ্চাশ বছরের রাস্তার উন্নয়ন একযোগে করে দেখিয়েছেন।

২. সকল সিটি কর্পোরেশনের মেয়রগণের সম্মিলিত উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড যোগ করলেও সেটা জাহাঙ্গীরের নগরকর্তা হিসেবে করা কর্মকান্ডের অর্ধেকও হবে না।

৩. রোডস এন্ড হাইওয়ে গত ২০ বছর ধরে আব্দুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর চৌরাস্তার রাস্তা উন্নয়নের নামে সরকার ও জনগণের টাকা লুটপাট আর ভোগান্তি দিয়ে যাচ্ছে। কাজের সিকি পরিমাণও শেষ করে নি। সম্প্রতি রোডস এন্ড হাইওয়ের রাস্তা উন্নয়ন নামক কমেডি শো'র চলাকালে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের সময় হাতেনাতে সেটা ধরা পড়ে মেয়রের কাছে। তিনি সেটা ফেসবুকে লাইভে ধরা দেন দেশ ও জাতির কাছে। তারপরপরই সেটা ভাইরাল হলে সঠিক মানের জিনিসপত্র দিয়ে রাস্তার কাজ শুরু হয়। মানুষের ভোগান্তি কমানো এবং দ্রুত সময়ে কাজ শেষ করার জন্য এই রাস্তার দায়িত্ব রোডস এন্ড হাইওয়ের কাছ থেকে সিটি কর্পোরেশনের আওতায় আনার আবেদনও করেছিলেন মেয়র।

৪. গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এই বিশাল উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে বিলা ছিল কিছু সংখ্যক চাঁদাবাজ, ঘুষ-খোরদের। কারণ অনেকেই দল কে কাজে লাগিয়ে কোন চুরি করার সুযোগ পায় নি ।
মেয়র হিসেবে জাহাঙ্গীর আলম কোন ইন্ডাস্ট্রিয়াল অথবা সাধারণ মানুষের কাছ থেকে পঞ্চাশটি টাকাও নিয়েছেন এমন বিবৃতি আমি আজও শুনি নি।

৫. "জাহাঙ্গীর আলম শিক্ষা ফাউন্ডেশন" এর মাধ্যমে গাজীপুরের একটা বড় সংখ্যক ছেলে-মেয়ে স্কুল-কলেজ-ভার্সিটিতে পড়ালেখা করছে। এই ফাউন্ডেশনটি না থাকলে এদের বেশীরভাগেরই হয়ত পড়ালেখা চালানো দুষ্কর হয়ে পড়তো এবং সংসারের হাল ধরতে হতো।
৬. কিছু নেতারা বিভিন্ন ইন্ড্রাস্ট্রি থেকে চাঁদা নিত, মেয়র এই বিষয় টি আমলে নেন এবং চাঁদাবাজি বন্ধ করার আপ্রাণ চেষ্টা করে বেশিরভাগ সফলতা অর্জন করেন।

৭. জাহাঙ্গীর আলাম সাধারণত গানম্যান বা বডিগার্ড নিয়ে চলাচল পছন্দ করেন না। তিনি একাই সাধারণ মানুষের কাছে গিয়ে সাথে রেখে সকল কাজ তদারকি করেন । এমনকি প্রায়ই রাত ২/৩ টায় তাকে কাজের মাঠে পাওয়া যায়।

৮. মেয়র জাহাঙ্গীর ভাওয়াল রাজার সম্পত্তি পাতি নেতাদের বেদখল হাত থেকে মুক্ত করে সরকারের কাছে হস্তান্তরের চেষ্টা করছিলেন।

Notice: ব্যক্তিগতভাবে আমি কোন ধরনের রাজনীতির সাথে জড়িত নই। তবে একটা কথা বলতেই হয়, গাজীপুর ২ এর এম.পি জনাব জাহিদ আহসান রাসেল ও মেয়র হিসেবে জনাব জাহাঙ্গীর আলাম গাজীপুরের জন্য রহমত স্বরুপ ।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ