Harunur Rashid( - (Rajbari))
প্রকাশ ২৬/১১/২০২১ ১২:৩৭পি এম
আমি বিএনপিকে কখনও পচন্দ করিনাই আজ ও করিনা।বিএনপি নেত্রী কে নিয়ে লেখার আমার কোন
সময় ও নেই।তার মানে কি আমাদের বিবেক মূল্যবোধ সব হারিয়ে গেছে?নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য ও গণপরিবহনের বর্ধিত ভাড়া নিয়ে সারা দেশের মানুষ আজ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। সয়াবিন তেলের দুই লিটারের একটা বোতল আজ কিনেছি তিনশো দশ টাকায় দোকানদার বললো দাম আরো বাড়বে।সরকার গণপরিবহনের ভাড়া বাড়িয়ে দিয়ে বাসের হেলপার কন্টাকটার ও যাত্রীদের সাথে যেন ঝগড়া লাগিয়ে দিয়েছে।দেশে যা হচ্ছে আর চলছে আমরা যেন শুধু হীরক রাজাই নয় এক রানীর রাজ্যে বসবাস করছি।শেখ হাসিনা গরীব দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য রাজনীতি করছেন।কিন্তু সেই হাসি আজ মানুষের দুঃখের হাসিতে পরিনত হয়েছে।স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী বললেন আর কতো ভর্তুকি দিবেন।প্রশ্ন হলো কার টাকা ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে?অবশ্যই তা জনগনের টাকা।বিশ্ব বাজারের দোহাই দিয়ে ডিজেল কেরোসিনের দাম বৃদ্ধি করা হলো যখন বিশ্ব বাজারে দাম কমেছে তখন সরকার যেন এক প্রকার নিরবতা পালন করছে। আওয়ামী লীগের যে কোন পর্যায়ের নেতা ও চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে পারে আর একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী তার চিকিৎসা নাকি এদেশের ডাক্তার দিয়েই সম্ভব? প্রয়োজনে বিদেশ থেকে ডাক্তার এনে চিকিৎসা দেয়ার কথা বলা হচ্ছে?কি হাস্যকর একটা যুক্তি?খালেদার চিকিৎসা যদি দেশে সম্ভব হয়ে থাকে অন্যদের চিকিৎসা কেন সম্ভব হচ্ছেনা?অন্যরা কেন বিদেশ যান চিকিৎসা করাতে। চিকিৎসা মানুষের মৌলিক অধিকারের একটি।অথচ এ অধিকার ও যেন আজ আমাদের নেই।

মানুষ কতদিন বাঁচবে বা কখন মরবে তার নিয়ন্ত্রণ আল্লাহর হাতে এটা আমরা সবাই বিশ্বাস করি কিন্তু বেঁচে থাকার জন্য তো সবাই চেষ্টা করে কিন্তু বেঁচে থাকতে পারনা পারবে ও না।প্রত্যেক প্রাণীকেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহন করতে হবে।অন্যজন মরে যাবে আর আপনি অমর হয়ে থাকবেন তা কখনই হবেনা।কিন্তু আপনার যদি সিঙ্গাপুর কানাডা আমেরিকায় গিয়ে চিকিৎসা করানোর অধিকার থাকে অন্যদের কেন থাকবেনা?

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের খালেদার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে যে মন্তব্য করেছেন তা হলো "আমাদের যাদের ধর্ম বিশ্বাস আছে, মানুষের হায়াত মওত আল্লার হতে। চিকিৎসা চলছে, আইনমন্ত্রী বলেছেন বিদেশ থেকে আরও ভালো চিকিৎসক আপনারা মনে করেন নিয়ে সেই ব্যবস্থা সরকার দেবে।

কিন্তু একজন মানুষ মরে গেলে, সরকার তো তাকে গলা টিপে মারছে না, তার দায় সরকারের উপর তুলে দিবেন, এটা তো ঠিক না। আমাদের বয়স হয়েছে বেঁচে থাকার তো একটা সময় সীমা আছে, জন্মের সঙ্গে মৃত্যু জড়িত। এটা আল্লাহ রাজি হলে বা কোন কারণে, মানুষের অসুস্থতার কারণে, অসুস্থত হয়ে মারা গেলে সরকারের উপরে আপনি কথায় কথায় দোষ চাপাতে পারবেন না"

এ কথা গুলো আজ খালেদার বেলায় বলছেন কিন্ত কোন কালেআপনাদের বেলায় যদি এমন হয় তখন আপনারা কি বলবেন?

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ