Jahidur Rahman( - (Dhaka))
প্রকাশ ২১/১১/২০২১ ০৮:৪১পি এম
ঘরের মাঠে ক্রিকেট খেলছে বাংলাদেশ। যেখানে সফরকারিদের সঙ্গে কোনো সাপোর্টার না আসলে পুরো গ্যালারিতেই স্বাগতিকদের দর্শকদের থাকার কথা। তবে ভিন্ন দৃশ্য দেখা গেলো মিরপুরের গ্যালারিতে।

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) পাকিস্তানের কাছে ৪ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। করোনা পরবর্তী সময়ে এই ম্যাচ দিয়ে মিরপুরে দর্শক ফিরেছে। যাদের মধ্যে কিছু পাকিস্তানি দর্শকও ছিলেন। দুঃখজনক হলেও সত্যি যে, মিরপুরের গ্যালারিতে পাকিস্তানি দর্শকদের পাশাপাশি বাংলাদেশি দর্শকদের হাতেও পাকিস্তানি পতাকা দেখা গেছে। এই দৃশ্য দেখে কোটি কোটি বাঙালির মতো মাশরাফি বিন মর্তুজার হৃদয়েও রক্তক্ষরণ হয়েছে।

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক শুক্রবার তার ফেসবুক আইডিতে লেখেন, ‘খেলার সঙ্গে কোনো কিছু মেলানো যায় না এটা ঠিক, কিন্তু খেলাটা যখন আমাদের দেশে আর খেলছে আমাদের দেশ, সেখানে অন্য যে দেশই খেলুক না কেন, তাদের পতাকা তাদের দেশের মানুষ ছাড়া আমাদের দেশের মানুষ উড়াবে, এটা দেখে সত্যি কষ্ট লাগে। যে যাই বলুক, ভাই দেশটা কিন্তু আপনার।’

তবে, এই বিষয়টি অন্যভাবেও দেখা যায়। আমরা যাই কিছু হোক নিজ দেশের বিপক্ষে সমর্থন কোনো ভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। তবে এই যে রাজনীতি, অর্থনীতি, বাণিজ্যিক, ক্রিকেট সমস্ত ক্ষেত্রে ধ্বংস হবার পর বিকল্পহীনভাবে এক ব্যক্তির দ্বারা জবাবদিহিতাহীনভাবে দায়িত্বের চেয়ারে বসে বছরের পর বছর দেশের ব্যবস্হা ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে তাই প্রশ্ন উঠে দেশের বিপক্ষে সমর্থন করা এটাও কি একটি প্রতিবাদ না অনাস্থা প্রকাশ? ভারতের অঙ্গরাজ্য হবার কথার প্রতিবাদ কি পাকিস্তানের সঙ্গে থাকার বাসনার কথা বলা কি দর্শকদের প্রতিবাদ না অনাস্থা?

আমাদের দেশের দায়িত্ব বসে থাকাদের বোধহয় কবে হবে?

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ