Feedback

জেলার খবর, খুলনা, ভিন্নস্বাদের খবর

গুণ্ডামি আচরণ করা অফিস সহায়কেরর দাপটে অফিসে অশান্তি

গুণ্ডামি আচরণ করা অফিস সহায়কেরর দাপটে অফিসে অশান্তি
August 14
05:25pm
2020
তরিকুল ইসলাম
-, খুলনা:
Eye News BD App PlayStore

খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের অফিস সহায়ক হাবিবুর রহমান। হুমকি-ধমকিতে তিনি প্রতিনিয়ত পরাস্ত করেন ওই অফিসের কর্মচারী থেকে শুরু করে কর্মকর্তা পর্যন্ত।

তার মতের বিরুদ্ধে কিছু ঘটলেই অফিস থেকে বের করে দেওয়া কিংবা প্রাণহানির হুমকিও দেন। আর পরিচয় দেন প্রধানমন্ত্রীর বংশধর। তার ক্রমাগত হুমকিতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। অফিসেও আসতে রাজি হচ্ছেন না অনেকে।

কর্মচারীরা কর্মকর্তাদের কাছে কোনোকিছু নিয়ে নালিশ করলেও ক্ষিপ্ত হন তিনি। কর্মকর্তাদের লাথি দিয়ে অফিস থেকে বের করে দেবেন এবং এরপরে অফিসে এলে গুলি করে মারবেন বলে হুমকি দেন। গুলি করে মারলেও তার কিছুই হবে না জানিয়ে চলেন বুক ফুলিয়ে।

অফিসে এহেন গুণ্ডামি আচরণ করা হাবিবুর রহমান নিজেকে প্রধানমন্ত্রীর বংশধর বলে পরিচয় দেন। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে তথ্য অফিসের এক কর্মচারীর ছেলের চাকরি দেওয়ার নাম করে তিন লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। অফিসের এক সহকারীকে বিসিএসে কনফার্ম করার জন্যও টাকার প্রস্তাব দেন। এছাড়া অন্য কর্মচারীদের ছেলেমেয়ের চাকরি দেওয়ার নামে বিভিন্ন সময়ে টাকার প্রস্তাব দিয়ে আসছেন হাবিবুর রহমান।

চতুর্থ শ্রেণির একজন কর্মচারী হয়েও হাবিবুর রহমান নিজেকে ক্ষমতাসীন দলের নেতা পরিচয় দিয়ে কর্মকর্তাদের উপরও খবরদারি করেন।

খুলনা অফিসে যোগদানের আগে ঢাকায় কর্মরত অবস্থায় হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালায় অসদাচরণের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ২০১৭ সালের ৪ ডিসেম্বর চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়।


এদিকে বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) খুলনা মহানগরীর পিটিআই মোড়ের খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের অভ্যন্তরীণ প্রশিক্ষণ শুরুর প্রাক্কালে হাবিবুর রহমান তার মোবাইলে নেটওয়ার্ক সংযোগ না পাওয়া নিয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এক পর্যায়ে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অফিসের বাইরের কাকে যেন চাপাতি নিয়ে আসতে বলেন এবং উপপ্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল, সহকারী তথ্য অফিসার মো. আতিকুর রহমান, টেলেক্স অপারেটর মো. মিজানুর রহমানসহ সবাইকে কোপাবেন বলে হুমকি দেন।  


তার হুমকির মধ্যে ‘তোরা সবাই রাজাকার, তোরা বাইরে বের হ’ সবকটাকে কোপাবো’ কথাটি বারবার বলেন। বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে উত্তেজিত অবস্থায় মিজানের গায়ে হাত তোলেন এবং কিল-ঘুষি দেন। তখন উপস্থিত কর্মচারীরা তার রোষানল থেকে নিরাপদ থাকার উদ্দেশ্যে তাকে অফিস থেকে বের করে দিয়ে গেটে তালা লাগিয়ে দিতে বাধ্য হন। তারপর বাইরে থেকে প্রধান সহকারীর দায়িত্ব পালনরত মো. জাকির হোসেনকে লক্ষ্য করে বলেন, ‘তুই অভিযোগ জানিয়ে চিঠি লিখলে তোর হাতের আঙুল কেটে ফেলবো’। অনেকক্ষণ পর্যন্ত উচ্চৈঃস্বরে সবাইকে লক্ষ্য করে তিনি আরও বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল ভাষায় গালাগালি দেন। পুরো ঘটনাটি অফিসের একজন গোপনে ভিডিও করে ফেসবুকে ছেড়ে দেন। যা মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়।


একজন অফিস সহায়কের এ ধরনের ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের প্রতিবাদ ও তার শাস্তির দাবি জানান অনেকে।


জানা যায়, ২০১৯ সালের খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসে অফিস সহায়ক পদে হাবিবুর রহমান যোগ নেন। তারপর থেকে বিভিন্ন সময়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে অহেতুক কারণে নিয়মিত অসদাচারণ করে আসছেন। হাবিবুর রহমান মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার সিমাখালীর ছয়ঘরিয়া গ্রামের মৃত কুটি মিয়ার ছেলে।


এ বিষয়ে মৌখিক ও লিখিতভাবে উপপ্রধান তথ্য অফিসারকে জানানো হয়েছে। তার ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের মাত্রা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে এবং বিষয়টি অফিসের নিয়মিত কার্যক্রমের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলছে।  তিনি বিভিন্ন সময়ে মন্ত্রী ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের প্রভাব দেখিয়ে অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বদলিসহ বিভিন্ন হুমকি দেন।    

           

খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিস যে ভাড়া ভবনে অবস্থিত তার উপরের তলায় থাকা আনসার-ভিডিপি ব্যাংকের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও সেবাগ্রহীতাদের কাছে এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এ অফিসের মর্যাদা বিশেষভাবে ক্ষুণ্ন হচ্ছে। যা একটি সরকারি অফিসের জন্য মোটেই কাম্য নয়।


খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল বলেন, হাবিবুর রহমান খুলনা অফিসে যোগদানের আগে ঢাকা অফিসে থাকাকালে দু’বার বরখাস্ত করা হয়। শর্তসাপেক্ষে তাকে খুলনা অফিসে বদলি করা হয়েছে। কিন্তু তিনি খুলনা অফিসে আসার পর থেকে সবার সঙ্গে অসৈজন্যমূলক আচরণ শুরু করেন। শান্তিপূর্ণ অফিসে অশান্তি তৈরি করেন। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার অফিসের ভিতরে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে যে আচরণ করেছেন তা ঢাকা সদর দপ্তরে জানিয়েছি। তথ্য অধিদপ্তর চূড়ান্তভাবে একবার তাকে বরখাস্ত করে। পরে আদালতে আপিলের মাধ্যমে মন্ত্রণালয় অফিসের শৃঙ্খলাভঙ্গ ও অসাদারচরণ না করার শর্তে তাকে পুনর্বহাল করা হয়।

 

এসব বিষয়ে হাবিবুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি  বলেন,  ঢাকা অফিসে এক নারী আমার সঙ্গে প্রতারণা করে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে আমাকে বরখাস্ত করা হয়। পরে আপিল করে আমি চাকরি ফিরে পাই। খুলনা অফিসের আমি ছাড়া সবাই জামায়াত-শিবিরের। তারা প্রতিনিয়ত আমাকে মানসিকভাবে টর্চার করে। তারা সবকিছু থেকে আমাকে বঞ্চিত করে। আমার ঘরে বউ নেই। দু’টি বাচ্চা নিয়ে আমি খুব কষ্টে আছি।

আপনি কোন সূত্রে শেখ বংশের লোক আপনার বাবার তো মিয়া বংশ, জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার বাবা প্রথম বিয়ে করছিলেন শেখ বংশে। যে কারণে আমরা শেখ বংশের। বিষয়টি আপনি খতিয়ে দেখতে পারেন।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বরগুনার রিফাত হত্যাঃ স্ত্রী মিন্নিসহ ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

বরগুনার রিফাত হত্যাঃ স্ত্রী মিন্নিসহ ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

সীমান্তে নিখোঁজ হওয়ার ১১ দিন পর মৃতদেহ উদ্ধার

সীমান্তে নিখোঁজ হওয়ার ১১ দিন পর মৃতদেহ উদ্ধার

যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ তাদের বিষয়ে কিছু করার নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ তাদের বিষয়ে কিছু করার নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মাধ্যমিকে ফেল করা মাহাবুব এখন সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

মাধ্যমিকে ফেল করা মাহাবুব এখন সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

মিন্নিসহ সব আসামীদের সাজা চাইলেন রিফাতের বোন

মিন্নিসহ সব আসামীদের সাজা চাইলেন রিফাতের বোন

রিফাত হত্যার মাস্টারমাইন্ড মিন্নি: রাষ্ট্রপক্ষ

রিফাত হত্যার মাস্টারমাইন্ড মিন্নি: রাষ্ট্রপক্ষ

ইউএনও ওয়াহিদা খানম হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন

ইউএনও ওয়াহিদা খানম হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন

মাজহারের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন শাওন

মাজহারের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন শাওন

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বৃদ্ধি নিয়ে যা বললেন মন্ত্রী

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বৃদ্ধি নিয়ে যা বললেন মন্ত্রী

৩০ দিনের মধ্যে জাহালমকে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেবে ব্র্যাক ব্যাংক

৩০ দিনের মধ্যে জাহালমকে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেবে ব্র্যাক ব্যাংক

মিনিকেট চালের দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়

মিনিকেট চালের দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়

বিএনপির সাবেক সভাপতি লৎফর রহমান মিন্টুর ইন্তিকাল

বিএনপির সাবেক সভাপতি লৎফর রহমান মিন্টুর ইন্তিকাল

খাদ্যনালী কেটে ফেললেন নার্স, সংকটাপন্ন রুগি

খাদ্যনালী কেটে ফেললেন নার্স, সংকটাপন্ন রুগি

স্পর্শকাতর স্থানে হাত ডান্স গুরুর, যা বললেন নোরা

স্পর্শকাতর স্থানে হাত ডান্স গুরুর, যা বললেন নোরা

জামালপুর পৌরসভার মেয়র প্রার্থী নূর হোসেন আবাহনী

জামালপুর পৌরসভার মেয়র প্রার্থী নূর হোসেন আবাহনী

সর্বশেষ

মৃত্যুদণ্ডের রায়ের পরও হাসছিলেন রিফাত ফরাজী

মৃত্যুদণ্ডের রায়ের পরও হাসছিলেন রিফাত ফরাজী

শিশুর জন্ম মুসলিম হিসেবেই, আমি কেবল নিজ ধর্মে ফিরেছি: নারী নব মুসলিম

শিশুর জন্ম মুসলিম হিসেবেই, আমি কেবল নিজ ধর্মে ফিরেছি: নারী নব মুসলিম

হত্যার পর নদীতে ফেলে দেয়া যুবক ফিরলেন ৬ বছর পর!

হত্যার পর নদীতে ফেলে দেয়া যুবক ফিরলেন ৬ বছর পর!

কুষ্টিয়ায় হোটেল মালিকগন আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হলেও সরকার হারাচ্ছে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব

কুষ্টিয়ায় হোটেল মালিকগন আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হলেও সরকার হারাচ্ছে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব

বাউফলে জোড়া খুনের বিচারের দাবীতে ঝাড়ু মিছিল

বাউফলে জোড়া খুনের বিচারের দাবীতে ঝাড়ু মিছিল

গল্প

গল্প

ভারতের স্থলবন্দর খুলে দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ভারতের স্থলবন্দর খুলে দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টপেজ

স্টপেজ

দেশের মানুষ ধর্ষণ, দূর্নীতি ও টাকা পাচারের ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছেঃ ভিপি নুর

দেশের মানুষ ধর্ষণ, দূর্নীতি ও টাকা পাচারের ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছেঃ ভিপি নুর

মাদ্রাসায় কর্মচারী নিয়োগ: ৬পদে ৪জন চেয়ারম্যান পরিবারের লোক!

মাদ্রাসায় কর্মচারী নিয়োগ: ৬পদে ৪জন চেয়ারম্যান পরিবারের লোক!

ফুসফুস ভালো রেখে জীবনযাপন করার জন্য এই ৭টি খাবার খাওয়া উচিৎ

ফুসফুস ভালো রেখে জীবনযাপন করার জন্য এই ৭টি খাবার খাওয়া উচিৎ

সজিনা পাতার গুণাগুণ

সজিনা পাতার গুণাগুণ

ডিমলায় ঢাকা সেচ্ছাসেবী সংগঠনের সমন্বয় বৃক্ষ ও টিউবওয়েল বিতরণ

ডিমলায় ঢাকা সেচ্ছাসেবী সংগঠনের সমন্বয় বৃক্ষ ও টিউবওয়েল বিতরণ

ঠাকুরগাঁওয়ে নিজের বলার মতো গল্প ফাউন্ডেশনের হাজার তম দিন উদযাপন

ঠাকুরগাঁওয়ে নিজের বলার মতো গল্প ফাউন্ডেশনের হাজার তম দিন উদযাপন

হবিগঞ্জের জি কে গউছের নাকে অস্ত্রোপাচার

হবিগঞ্জের জি কে গউছের নাকে অস্ত্রোপাচার