Feedback

আইন-আদালত

স্বামী-স্ত্রী বিচ্ছেদের পর সন্তান কার কাছে থাকবে

স্বামী-স্ত্রী বিচ্ছেদের পর সন্তান কার কাছে থাকবে
August 12
11:13pm
2020
P,M. Serajul Islam
Khoksa, Kushtia:
Eye News BD App PlayStore

অনেক আশা-স্বপ্ন নিয়ে দুজন মানুষ একসঙ্গে পথচলা শুরু করে। সেই পথচলা সবসময় মসৃণ হয় না। অনেক ক্ষেত্রেই দুজনের সম্পর্ক এমন এক অবস্থায় এসে দাঁড়ায় বিচ্ছেদ ছাড়া আর কোন উপায় থাকে না। বিপত্তি ঘটে সন্তানকে নিয়ে। দু পক্ষই সন্তানকে নিতে পেতে মরিয়া হয়ে উঠে। এ নিয়ে আইন-আদালতেও যেতে দেখা যায়। তাতে কার কি লাভ-লোকসান হয় এ নিয়েই আমাদের আজকের আলোচনা।


আমাদের প্রশ্ন হচ্ছে কিন্তু বিচ্ছেদের পর এ সন্তানদের আইনগত অবস্থান কী হবে, তারা কার কাছে থাকবে, কে বহন করবে তাদের ভরণপোষণ।


মুসলিম আইন অনুযায়ী, পিতাই অপ্রাপ্তবয়স্ক সন্তানের আইনগত অভিভাবক আর মা হচ্ছেন সন্তানের জিম্মাদার মাত্র। বিচ্ছেদ হলেও মা তাঁর সন্তানের তত্ত্বাবধান করার ক্ষমতা হারান না। ছেলের ক্ষেত্রে সাত বছর বয়স পর্যন্ত এবং মেয়ে সন্তানের বয়ঃসন্ধি বয়স পর্যন্ত মা সন্তানদের নিজের কাছে রাখতে পারবেন। সন্তানের মঙ্গলের জন্য যদি সন্তানকে মায়ের তত্ত্বাবধানে রাখার আরও প্রয়োজন হয়, সে ক্ষেত্রে এ বয়সসীমার পরও মা সন্তানকে নিজের কাছে রাখতে পারবেন। তবে এ জন্য ক্ষেত্রবিশেষে আদালতের অনুমতির প্রয়োজন হতে পারে। তবে মা যদি দ্বিতীয় বিয়ে করেন, তাহলে সন্তানকে নিজের হেফাজতে রাখার ক্ষমতা হারাতে হতে পারে। তবে উচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত রয়েছে। মা যদি তার নতুন সংসারে সন্তানকে হেফাজতে রাখতে পারেন, সন্তানের বেড়ে উঠা গড়ে উঠার ক্ষেত্রে কোন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয় সেক্ষেত্রে তাকে সন্তানের জিম্মাদারি দিতে কোনো সমস্যা নেই।


নাবালকের কল্যাণের বিষয়টি হচ্ছে মূল কথা। আদালত নাবালকের কল্যাণ কীভাবে নিহিত আছে, সেটিই বিবেচনা করবেন। 


কোনো বাবা নিজের অচরণের কারণে সন্তানের তত্ত্বাবধানের অধিকার হারাতে পারেন।


আবার  মা যদি তাঁর নাবালক সন্তানের তাঁর স্বামীর আর্থিক সাহায্য ছাড়াই নিজ খরচে লালন-পালন করে থাকেন, তবে সে সন্তানকে আদালত বাবার তত্ত্বাবধানে দিতে অস্বীকার করতে পারেন। [১৭ ডিএলআর ১৩৪]। 


মায়ের অগোচরে যদি বাবা জোরপূর্বক সন্তানকে নিজের হেফাজতে গ্রহণ করেন, সেক্ষেত্রে পিতার বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা পর্যন্ত দেয়া যাবে। এই প্রসঙ্গে,“৪৬ ডিএলআর এর আয়েশা খানম বনাম মেজর সাব্বির আহমেদ” মামলার মাধ্যমে এই নীতি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

 


অনেক সময় সন্তানের যদি ভালো-মন্দ বোঝার ক্ষমতা থাকে, তাহলে সন্তানের মতামতকেও আদালত গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। এ জন্য প্রয়োজন হলে সন্তানকে আলাদা করে বিচারক নিজের কাছে নিয়ে তার মতামত জেনে নিতে পারেন। 


আবার মা-বাবা পর্যায়ক্রমে সন্তানকে কাছে রাখা কিংবা একজনের কাছে থাকলে অন্যজনকে দেখা করার অনুমতিও দিয়ে থাকেন। পারিবারিক আদালতে নিজেদের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে সন্তানকে কাছে রাখার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ারও সুযোগ রয়েছে।






বাংলাদেশে পারিবারিক আদালত অধ্যাদেশ ১৯৮৫-এর ৫ ধারা মতে সন্তানের কাস্টডির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার একচ্ছত্র এখতিয়ার পারিবারিক আদালতের।



মা কখন সন্তানের জিম্মাদার হারান

 ১. নীতিহীন জীবনযাপন করলে, 

২. যদি এমন কারো সঙ্গে তার বিয়ে হয় যিনি শিশুটির নিষিদ্ধ স্তরের মধ্যে ঘটলে তার ওই অধিকার পুনর্জীবিত হয়, 

৩. সন্তানের প্রতি অবহেলা করলে ও দায়িত্ব পালনে অপারগ হলে, 

৪. বিয়ে থাকা অবস্থায় বাবার বসবাসস্থল থেকে দূরে বসবাস করলে,

৫. যদি সে ইসলাম ছাড়া অন্য কোনো ধর্ম গ্রহণ করে, 

৬. যদি সন্তানের পিতাকে তার জিম্মায় থাকা অবস্থায় দেখতে না দেয়।


সন্তানের ভরণপোষণের দায়িত্ব কার

বিচ্ছেদের পর সন্তান যদি মায়ের কাছেও থাকে, তবে সন্তানের ভরণপোষণের দায়িত্ব সম্পূর্ণ বাবার। অর্থাৎ মা-বাবার মধ্যে বিচ্ছেদ হলে কিংবা মা-বাবা আলাদা বসবাস করলে বাবাকেই সন্তানদের ভরণপোষণ দিয়ে যেতে হবে। ইচ্ছে করলে মা আলাদা থেকেও বিবাহবিচ্ছেদ হোক বা না হোক, সন্তানের ভরণপোষণ আদায় করার জন্য নির্দিষ্ট সময়েরর মধ্যে পারিবারিক আদালতে মামলা দায়ের করে ভরণপোষণের অধিকার আদায় করতে পারেন।

 

লেখক : বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী, আইনগ্রন্থ প্রণেতা ও সম্পাদক-প্রকাশক ‘দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল’। Email:seraj.pramanik@gmail.com মোবাইল: ০১৭১৬-৮৫৬৭২৮







All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

করোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মেস ভাড়া মওকুফ চায় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

করোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মেস ভাড়া মওকুফ চায় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

ভাস্কর্য নির্মাণ সম্পর্কে যা বললেন আজহারী

ভাস্কর্য নির্মাণ সম্পর্কে যা বললেন আজহারী

"গৌরির নাম বদলে আয়েশা, পরতে হবে বোরখা"-স্ত্রীকে বললেন শাহরুখ

"গৌরির নাম বদলে আয়েশা, পরতে হবে বোরখা"-স্ত্রীকে বললেন শাহরুখ

২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

১৪৪ তলা বিল্ডিং গুলিয়ে ফেলা হলো মুহূর্তের মধ্যে

১৪৪ তলা বিল্ডিং গুলিয়ে ফেলা হলো মুহূর্তের মধ্যে

চেতনার ভিসুভিয়াস ! তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

চেতনার ভিসুভিয়াস ! তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

এবার 'বাবু খাইছো' গান গেয়ে আলোচনায় হিরো আলম

এবার 'বাবু খাইছো' গান গেয়ে আলোচনায় হিরো আলম

মৃত্যুকে ভয় না করে সেনাদের যুদ্ধ জয়ের প্রস্তুতি নিতে বললেন শি

মৃত্যুকে ভয় না করে সেনাদের যুদ্ধ জয়ের প্রস্তুতি নিতে বললেন শি

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী আততায়ীর হাতে নিহত

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী আততায়ীর হাতে নিহত

সন্তান রেখে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, শ্বশুর-শাশুড়িকে হয়রানি

সন্তান রেখে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, শ্বশুর-শাশুড়িকে হয়রানি

কি খাচ্ছেন গুড়, কিভাবে তৈরী হচ্ছে নকল গুড়

কি খাচ্ছেন গুড়, কিভাবে তৈরী হচ্ছে নকল গুড়

৭১ টিভি চ্যানেলে ৫৬ টি বিদ্যালয় নিয়ে সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে বরগুনায় শিক্ষকদের মানববন্ধন

৭১ টিভি চ্যানেলে ৫৬ টি বিদ্যালয় নিয়ে সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে বরগুনায় শিক্ষকদের মানববন্ধন

সাংবাদিকদের নামে মিথ্যা মামালার প্রতিবাদে মানববন্ধন

সাংবাদিকদের নামে মিথ্যা মামালার প্রতিবাদে মানববন্ধন

জেলা পরিষদের জমি দখল করে পাইকগাছায় মার্কেট নির্মাণ

জেলা পরিষদের জমি দখল করে পাইকগাছায় মার্কেট নির্মাণ

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

সর্বশেষ

মৌলভীবাজারে মূল সড়কের উপর তৃতীয় লিঙ্গের এক জনের লাশ উদ্ধার

মৌলভীবাজারে মূল সড়কের উপর তৃতীয় লিঙ্গের এক জনের লাশ উদ্ধার

অবশেষে ইপিএলে ৬ মিনিটে জয় পেল ম্যানসিটি

অবশেষে ইপিএলে ৬ মিনিটে জয় পেল ম্যানসিটি

নারায়ণগঞ্জে সাংবাদিকের পা ভেঙে দিল সন্ত্রাসীরা

নারায়ণগঞ্জে সাংবাদিকের পা ভেঙে দিল সন্ত্রাসীরা

বিশ্রাম থেকে ফিরলেন মেসি

বিশ্রাম থেকে ফিরলেন মেসি

পলাশবাড়ী প্রেসক্লাবের ত্রি বার্ষিক সাধারণ নির্বাচনে পাতা সভাপতি রতন সাধারণ সম্পাদক

পলাশবাড়ী প্রেসক্লাবের ত্রি বার্ষিক সাধারণ নির্বাচনে পাতা সভাপতি রতন সাধারণ সম্পাদক

রোহিঙ্গা গণহত্যা: মামলা লড়তে ৫ লাখ মার্কিন ডলার দিল বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা গণহত্যা: মামলা লড়তে ৫ লাখ মার্কিন ডলার দিল বাংলাদেশ

আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করেছে  স্ত্রী

আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করেছে স্ত্রী

একুশে পদক প্রাপ্ত ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান করোনায় মারা গেছেন

একুশে পদক প্রাপ্ত ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান করোনায় মারা গেছেন

আমার করোনা নেগেটিভ এসেছে: আসিফ নজরুল

আমার করোনা নেগেটিভ এসেছে: আসিফ নজরুল

গাজীপুরে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় এসআই নিহত, কনস্টেবল আহত

গাজীপুরে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় এসআই নিহত, কনস্টেবল আহত

কোটি ডলার দিলেও হিজাব পড়া  ছাড়া যাবে না: মডেল হালিমা

কোটি ডলার দিলেও হিজাব পড়া ছাড়া যাবে না: মডেল হালিমা

উত্তরাঞ্চলে শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

উত্তরাঞ্চলে শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

চরফ্যাশনে পাওনা টাকা চাওয়ায় স্ত্রীকে দিয়ে মিথ্যা ধর্ষণ মামলা

চরফ্যাশনে পাওনা টাকা চাওয়ায় স্ত্রীকে দিয়ে মিথ্যা ধর্ষণ মামলা

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

ইসলামে ভাস্কর্য ও মূর্তি উভয়ই নিষিদ্ধ: মুফতি ফয়জুল করীম

ইসলামে ভাস্কর্য ও মূর্তি উভয়ই নিষিদ্ধ: মুফতি ফয়জুল করীম