Feedback

জেলার খবর

ঝুঁকি নিয়ে ট্রাকে করে কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ

ঝুঁকি নিয়ে ট্রাকে করে কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ
August 08
01:38pm
2020
Abdur Rouf Robel
Sreepur, Gazipur:
Eye News BD App PlayStore

আপনজনদের সাথে  ঈদের ছুটি কাটিয়ে আবার কর্মস্থলের দিকে ফিরছেন মানুষগুলো  জীবন-জীবিকার তাগিদে।পবিত্র ইদুল আজহাকে উপলক্ষ করে তারা প্রিয়জনদের সাথে ইদের আনন্দ ভাগাভাগি করার জন্য চলে যান গ্রামের বাড়ীতে।ইদের ছুটি শেষে ঢাকা, গাজীপুর, সাভার, আশুলিয়ার পোশাক কারখানাগুলো খুলতে শুরু করায় মানুষ নিজেদের  কর্মস্থলে যেতে শুরু করেছেন। আর কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য সাধ্যমত ব্যবহার করছেন বিভিন্ন ধরনের যানবাহন। তবে নিম্ন আয়ের বেশিরভাগ মানুষের ভরসা খোলা ট্রাক ও মিনি পিকআপ। 


সরেজমিনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে গিয়ে দেখা যায়,খোলা ট্রাক এবং পিক-আপে করে গ্রাম থেকে শহরমুখী যাচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষেরা।এক্ষেত্রে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব।জীবনের ঝুকি নিয়ে অনেকটা গাদাগাদি করেই তারা বসে আছে।তপ্ত রোদে সবচেয়ে বেশি কষ্ট পাচ্ছে শিশুরা। অথচ প্রতিনিয়ত এসব ছোট পিক-আপের দূর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়। প্রতিটি ছোট পিক-আপে ১০ থেকে ২০ জন যাত্রী বহন করছে। 


ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ থানার গার্মেন্টসকর্মী লাইলী বেগম জানান,বাসের ভাড়া অনেক বেশি সেই তুলনায় ট্রাকের ভাড়া কম। এই জন্য আমরা ট্রাক দিয়ে যাচ্ছি। ঝুঁকির কথা চিন্তা করলে তো হবে না, আমরা গরীব মানুষ। 


গার্মেন্টস কর্মী কামাল হোসেন জানান, কয় টাকা আর  বেতন পাই? বাসা ভাড়া দিয়ে যা থাকে তা দিয়েই কুনোমতে সংসার চালাই।তবে ঈদের বোনাস পাওয়ার কারণে প্রতি ইদে বাড়িতে আসা হয় । এখন তো টাকা পয়সা সব শেষ, তাই ট্রাকে করেই কর্মস্থল  গাজীপুর যাচ্ছি।


                 

শেরপুর থেকে ঢাকাগামী এক গার্মেন্টস কর্মী জানান, আমরা গরীব মানুষ কয় টেহা আর বেতন পাই। বাসের হেলফাররা ডাহাইতের মতো বেশি বেশি ভাড়া চায়। এলিগ্গা আমরা টাহে হইরা যায়।পেফারো লেইক্কা দেইনযে ডেহাইতরা যে বাস ভাড়া কম রাহে। 


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পিক-আপ চালক জানান, ইদের সময় বাস ভাড়া বেশি থাকার কারণে নিম্ন আয়ের মানুষেরা এই সকল যানবাহন ব্যবহার করে থাকে।আমাদেরও ইনকাম বেড়ে যায়। আর গার্মেন্টসের যাত্রী দেখলে পুলিশও ধরেনা। ঝুঁকির কথা জিজ্ঞেস করলে ঐ চালক জানান,ঝুঁকি তো আছেই কিন্তু তারপরেও তো কর্মস্থলে সঠিক সময়ে ফিরতে না পারলে চাকুরি থাকবেনা। 


মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ আর আল মামুন  জানান,আমরা ট্রাক অথবা পিক-আপে যাত্রী দেখলে তাদেরকে নামিয়ে দেই।  পাশাপাশি এভাবে গাড়ীতে যাতায়াত ঝুঁকিপূর্ণ এ বিষয়ে তাদেরকে সচেতন করি। মূলত বাস ভাড়া থেকে এসব যানবাহনে ভাড়া কম থাকার কারণে যাত্রীরা এসব বাহন ব্যবহার করে। আমরা প্রতিনিয়ত এসব চালক এবং যাত্রীদের সচেতন করার চেষ্টা করছি।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

সরিষাবাড়ীতে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

সরিষাবাড়ীতে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা থাকছে হাবিপ্রবির নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবনে

অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা থাকছে হাবিপ্রবির নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবনে

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

ফেইসবুকে ফেইক আইডি খুলে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত আটক ১

ফেইসবুকে ফেইক আইডি খুলে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত আটক ১

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

হিন্দি বলতে না পারায় সিনেমা থেকে বাদ দেন জন, তারই নায়িকা হয়ে বদলা নেন ক্যাটরিনা

হিন্দি বলতে না পারায় সিনেমা থেকে বাদ দেন জন, তারই নায়িকা হয়ে বদলা নেন ক্যাটরিনা

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

জেনে নিন কী কী গুণ রয়েছে গোলমরিচে

জেনে নিন কী কী গুণ রয়েছে গোলমরিচে

করোনা নিয়ে মুখ খুলছে উহান, ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে কেটেছে

করোনা নিয়ে মুখ খুলছে উহান, ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে কেটেছে

কঙ্গনাকে বয়কটের ডাক

কঙ্গনাকে বয়কটের ডাক

পৃথিবীর সব মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে: আ ক ম মোজাম্মেল হক

পৃথিবীর সব মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে: আ ক ম মোজাম্মেল হক

নভেম্বরে ৪৪৩ সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ নিহত ৭৪১ আহত : যাত্রী কল্যাণ সমিতি

নভেম্বরে ৪৪৩ সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ নিহত ৭৪১ আহত : যাত্রী কল্যাণ সমিতি

সর্বশেষ

প্রতি ১০ মিনিটে একটি শিশু মারা যাচ্ছে ইয়েমেনে

প্রতি ১০ মিনিটে একটি শিশু মারা যাচ্ছে ইয়েমেনে

জামালপুরের ভ্যান চালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

জামালপুরের ভ্যান চালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

আসছে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ

আসছে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ

ধুনট,বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতার প্রতিবাদে যুবলীগের বিক্ষোভ।

ধুনট,বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতার প্রতিবাদে যুবলীগের বিক্ষোভ।

শিবগঞ্জে আ‘লীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে দু‘গ্রুপের সংঘর্ষ: আহত ১০ জন

শিবগঞ্জে আ‘লীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে দু‘গ্রুপের সংঘর্ষ: আহত ১০ জন

কালীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মোটর সাইকেল আরোহী

কালীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মোটর সাইকেল আরোহী

বেতন বৈষম্য নিসরনের দাবিতে সিলেটে স্বাস্থ্যকর্মীদের কর্মবিরতি

বেতন বৈষম্য নিসরনের দাবিতে সিলেটে স্বাস্থ্যকর্মীদের কর্মবিরতি

১৬ জানুয়ারি ভোট হবে যে ৬১ পৌরসভায়

১৬ জানুয়ারি ভোট হবে যে ৬১ পৌরসভায়

সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারীর সম্মাননা পেল সিলেটের ১০ প্রতিষ্ঠান

সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারীর সম্মাননা পেল সিলেটের ১০ প্রতিষ্ঠান

র‌্যাবের অভিযানে সিলেটের বিভিন্ন স্থান থেকে মদ-ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার ৮

র‌্যাবের অভিযানে সিলেটের বিভিন্ন স্থান থেকে মদ-ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার ৮

এমসি কলজে ধর্ষণ মামলায় চার্জশিট আগামীকাল দেবে পুলিশ

এমসি কলজে ধর্ষণ মামলায় চার্জশিট আগামীকাল দেবে পুলিশ

৩ ডিসেম্বর ঠাকুরগাঁও পাক-হানাদার মুক্ত দিবস

৩ ডিসেম্বর ঠাকুরগাঁও পাক-হানাদার মুক্ত দিবস

শ্যামনগর আটুলিয়ায় চক্ষু চিকিৎসা সেবা ক্যাম্প

শ্যামনগর আটুলিয়ায় চক্ষু চিকিৎসা সেবা ক্যাম্প

পূণরায় নিস্ক্রিয়রা স্থান পেয়েছে রংপুর মহানগর আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন

পূণরায় নিস্ক্রিয়রা স্থান পেয়েছে রংপুর মহানগর আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন

সড়ক দুর্ঘটনা

সড়ক দুর্ঘটনা