Feedback

জাতীয়, খোলা কলাম

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অদ্ভুত সিদ্ধান্ত

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অদ্ভুত সিদ্ধান্ত
August 07
02:21pm
2020
Shah alam Talukdar
Sylhet, Sylhet:
Eye News BD App PlayStore

"অনুমতি ছাড়া সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীকে অভিযান পরিচালনা না করার নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।" উপরের কথাগুলো পড়ে নিশ্চয়ই খারাপ লাগছে।স্বাস্থ্যখাতে কি পরিমাণ দূর্নীতি হয়েছে,এটা আর নতুন করে বলার কিছু নেই।কিন্তু এই জিনিসগুলো চাপা পড়ে থাকতো যদিনা কোভিড-১৯ মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়তো। মানুষ এখন অভ্যস্ত হতে শিখেছে।


এখন আর কেউ আগের মতো মৃত্যুর সংখ্যায় চমকে উঠেনা।কমে এসেছে কোভিড-১৯ পরিক্ষা করানোর আগ্রহও।এর পিছনে কারণ হচ্ছে মানুষ আস্তে আস্তে বিশ্বাস হারিয়ে ফেলছেন।বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেখানে তাদের দায়িত্ব হচ্ছে,স্বাধীনভাবে কাজ করার।ধরুন 'দূর্নীতিদমন কমিশন'এই প্রতিষ্ঠানটি কিন্তু যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় অভিযান চালাতে পারেন,যদি তারা মনে করেন যে,সেখানে কোন দূর্নীতি হয়েছে।


এখন আসুন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে কথায় ফিরে আসি।কিছুদিন আগেই একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বাধ্য হয়েছেন পদত্যাগ করতে,যার উপর উঠে এসেছে দূর্নীতির অভিযোগ। এখন ধরুন যে এই মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য অনুযায়ী তাদের সাথে মিলে বা তাদের অনুমতি নিয়ে অভিযান পরিচালনা করা যাবে,এখন যাদের কাছে অনুমতি চাওয়া হলো, তাদের মধ্যেই যদি কেউ একজন এই কর্মকান্ডে জড়িত থাকেন,তাহলে কি এই অভিযান মোটেও ফলপ্রসূ হবে?


আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কারনেই হোক বা বিভিন্ন অধিদপ্তরের হস্তক্ষেপেই হোক,উঠে এসেছে রিজেন্ট হাসপাতালের বা জেকেজির দূর্নীতি যাদের অনেকেই বর্তমান সরকারের নাম ভাঙ্গিয়ে খাচ্ছে।কিন্তু এরা তো মাত্র কয়েকজন ধরা খেয়েছেন।এখনও সারা বাংলাদেশে এরকম কত হাজার হাজার সাহেদ রয়েছে তার কি আদৌ কোন হিসেব রয়েছে।যদি তাদের অনুমতি নিয়েই তাদের অধিনস্ত্ব কোন প্রতিষ্ঠানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালাতে যায়,তাহলে যতক্ষণে অভিযান সংঘটিত হবে,ততক্ষণে তো অনেকেই সতর্ক হয়ে যাবে।


আমি বলবো না যে চিকিৎসকরা তাদের সর্বোচ্চ সেবা দিচ্ছেন না,তারা তাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন,কিন্তু শুধু চিকিৎসক দিয়ে তো এই খাত চলে না,যারা চালায় তাদের মধ্যে যদি কেউ নিজেকে দূর্নীতির সাথে জড়িয়ে নেয়,তাহলে তো ক্ষতিগ্রস্ত হয় সাধারণ মানুষ এবং নষ্ট হয় মানুষের মৌলিক অধিকার। 


উনাদের দাবি স্বাস্থ্যখাতে নাকি চাপা অসন্তোষ বিরাজ করছে,এই অভিযানের ফলে।আমি তো বলবো এই অভিযানের ফলে সাধারণ মানুষ জানতে পারছে আসলে কি হচ্ছে এই খাতে।যারা জড়িয়ে পড়েছেন তাদের অসন্তোসকে সন্তোসে রুপান্তর করতে যেয়ে পুরো দেশবাসীর কাছে নিজেদের অবস্থান আরও খারাপ করছেন বলেই আমার বিশ্বাস।


কলামিস্ট,প্রভাষক(ইংরেজি)সভাপতি,সাকসেস হিউম্যান রাইট সোসাইটি,সিলেট জেলা।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, যশোরের নতুন অধ্যক্ষ হলেন লেফটেন্যান্ট কর্ণেল নুসরাত নূর আল চৌধুরী

ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, যশোরের নতুন অধ্যক্ষ হলেন লেফটেন্যান্ট কর্ণেল নুসরাত নূর আল চৌধুরী

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় বৃদ্ধ মায়ের বিষ পানে আত্নহত্যা! আটক ৩!

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় বৃদ্ধ মায়ের বিষ পানে আত্নহত্যা! আটক ৩!

পাগলার কান্দিপাড়ায় অজ্ঞান পার্টির কবলে ১০ বছরের মাদ্রাসা ছাত্র

পাগলার কান্দিপাড়ায় অজ্ঞান পার্টির কবলে ১০ বছরের মাদ্রাসা ছাত্র

আবারও ইউটার্ন ট্রাম্পের, 'কখনও হার মানব না'

আবারও ইউটার্ন ট্রাম্পের, 'কখনও হার মানব না'

দুই বছরেও শেষ হয়নি হাবিপ্রবির গ্রন্থাগার ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখার অটোমেশনের কাজ

দুই বছরেও শেষ হয়নি হাবিপ্রবির গ্রন্থাগার ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখার অটোমেশনের কাজ

ভালোবাসার প্রতিদান তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

ভালোবাসার প্রতিদান তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

ভৈরবে গাজাঁ আত্মসাতের অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

ভৈরবে গাজাঁ আত্মসাতের অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

ঘূর্ণিঝড়ের আকারে আজ রাতেই ছোবল মারতে পারে নিভার, সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ১৪৫ কিমি

ঘূর্ণিঝড়ের আকারে আজ রাতেই ছোবল মারতে পারে নিভার, সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ১৪৫ কিমি

পাকিস্তানসহ ১৩ টি দেশকে ভিসা দিবে না আরব আমিরাত

পাকিস্তানসহ ১৩ টি দেশকে ভিসা দিবে না আরব আমিরাত

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আন্দোলন, সিঙ্গাপুরে ১৫ বাংলাদেশিকে বহিষ্কার

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আন্দোলন, সিঙ্গাপুরে ১৫ বাংলাদেশিকে বহিষ্কার

পাকিস্তানে ধর্ষকের শাস্তি "পুরুষাঙ্গ" অকেজো করে দেওয়া

পাকিস্তানে ধর্ষকের শাস্তি "পুরুষাঙ্গ" অকেজো করে দেওয়া

আমতলীতে নদী দখল করে ইটভাটা, দ্রুত বন্ধের দাবী এলাকাবাসীর

আমতলীতে নদী দখল করে ইটভাটা, দ্রুত বন্ধের দাবী এলাকাবাসীর

কুবিতে প্রাতিষ্ঠানিক ইমেইল চালু করার কার্যক্রম উদ্বোধন করা হলো

কুবিতে প্রাতিষ্ঠানিক ইমেইল চালু করার কার্যক্রম উদ্বোধন করা হলো

করোনা প্রতিরোধে হাবিপ্রবি ছাত্রলীগ শাখার মাস্ক ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

করোনা প্রতিরোধে হাবিপ্রবি ছাত্রলীগ শাখার মাস্ক ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

নতুন যে রাষ্ট্রের সাথে আজ কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করল বাংলাদেশ

নতুন যে রাষ্ট্রের সাথে আজ কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করল বাংলাদেশ

সর্বশেষ

লেবুর রস কি করতে পারে জানুন

লেবুর রস কি করতে পারে জানুন

তোমার থেকে বড় সুপারস্টার আমার চোখে আর কেউ ছিল না : মাশরাফি বিন মর্তুজা

তোমার থেকে বড় সুপারস্টার আমার চোখে আর কেউ ছিল না : মাশরাফি বিন মর্তুজা

বই রিভিউ নং- ১; মেমসাহেব

বই রিভিউ নং- ১; মেমসাহেব

সর্দি-কাশি হলে শিশুদের যেসব খাবার খাওয়ানো উচিৎ নয়

সর্দি-কাশি হলে শিশুদের যেসব খাবার খাওয়ানো উচিৎ নয়

ধর্ষণের শিকার নারী গাইবান্ধার লক্ষ্মীপুর ইউপি চেয়ারম্যান জেলহাজতে

ধর্ষণের শিকার নারী গাইবান্ধার লক্ষ্মীপুর ইউপি চেয়ারম্যান জেলহাজতে

গাইবান্ধায় নারী নির্যাতন সহিংসতা প্রতিরোধে পক্ষকালব্যাপী কর্মসূচি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন

গাইবান্ধায় নারী নির্যাতন সহিংসতা প্রতিরোধে পক্ষকালব্যাপী কর্মসূচি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন

রেডিও সারাবেলা ৯৮.৮ এফএম উপদেষ্টা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

রেডিও সারাবেলা ৯৮.৮ এফএম উপদেষ্টা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

এক নজরে ম্যারাডোনা

এক নজরে ম্যারাডোনা

গাইবান্ধায় জেলা পুলিশের উদ্যোগে পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ

গাইবান্ধায় জেলা পুলিশের উদ্যোগে পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আফরোজা

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আফরোজা

ফুটবলেরই আরেক নাম ম্যারাডোনা

ফুটবলেরই আরেক নাম ম্যারাডোনা

ইঁদুরের গর্তে পিঠার স্বপ্ন

ইঁদুরের গর্তে পিঠার স্বপ্ন

কিংবদন্তী ফুটবলার ম্যারাডোনা আর নেই

কিংবদন্তী ফুটবলার ম্যারাডোনা আর নেই

ফুটবল জাদুকর ম্যারাডোনা মারা গেছেন

ফুটবল জাদুকর ম্যারাডোনা মারা গেছেন

ময়মনসিংহে শিশু ধর্ষণ মামলা ধামাচাপা দিতে গিয়ে কারাগারে শ্রমিক নেতা

ময়মনসিংহে শিশু ধর্ষণ মামলা ধামাচাপা দিতে গিয়ে কারাগারে শ্রমিক নেতা