Feedback

জেলার খবর, জাতীয়, কক্সবাজার

মেজর সিনহা রাশেদ হত্যার ঘটনায় তদন্ত চলছে-হত্যাকারী পুলিশ হেফাজতেঃ প্রত্যক্ষদর্শী মুয়াজ্জিন নিখোঁজ

মেজর সিনহা রাশেদ হত্যার ঘটনায় তদন্ত চলছে-হত্যাকারী পুলিশ হেফাজতেঃ প্রত্যক্ষদর্শী মুয়াজ্জিন নিখোঁজ
August 04
11:44pm
2020
Dilip Kumar Talukder
Bakolia, Chattogram:
Eye News BD App PlayStore
কক্সবাজারের টেকনাফ শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে সেনাবাহিনীর সাবেক মেজর সিনহা মো. রাশেদ নিহত হওয়ার ঘটনা আনুষ্ঠানিক ভাবে তদন্ত শুরু করেছেন তদন্ত কমিটি। আজ মঙ্গলবার (৪ আগষ্ট) এ তদন্ত শুরু করে তদন্ত কমিটি। এর আগে শামলাপুর তদন্ত কেন্দ্রের ২১ জন পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে। গুলিবর্ষণকারী ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীকে পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে।

তবে, পুলিশের দায়ের করা মামলায় নিহত মেজর সিনহা মো. রাশেদ ও গুলিবিদ্ধ সিফাতের ওপরই হত্যার দায় চাপিয়েছে পুলিশ। গত শুক্রবার (৩১ জুলাই) টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়ার কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর পুলিশ তল্লাশি চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে সিনহা মো. রাশেদ নিহত হন। এসময় পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন মেজর সিনহার সাথে  থাকা সাহেদুল ইসলাম সিফাত।

পুলিশের দাবী, গাড়ি তল্লাশি করে জার্মানির তৈরি একটি পিস্তল, নয়টি গুলি, ৫০টি ইয়াবা, দুটি বিদেশি মদের বোতল এবং চার পোটলা গাঁজা উদ্ধার করেছে। ওই গাড়িতে থাকা অন্যকজনকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে। ঘটনাস্থলে নিহত মেজর সিনহার ছবি ও ভিডিও করতে চাইলে গোয়েন্দা সংস্থা একজন সার্জেন্টের মোবাইল ও আইডি কার্ড কেড়ে নেয় পুলিশ।

জানা গেছে, নিহত সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান যশোরের ১৩ বীর হেমায়েত সড়কের সেনানিবাস এলাকার মুক্তিযোদ্ধা মৃত এরশাদ খানের ছেলে।এদিকে, মেরিন ড্রাইভ সড়কে একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনা নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য রয়েছে। এমনকি পুলিশ যদিওবা দাবি করেছে, দুর্ধর্ষ রোহিঙ্গা ডাকাত বাহিনীর সদস্য পাহাড় থেকে নেমে আসার খবর পেয়েই বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বরত পরিদর্শক লিয়াকতের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মেরিন ড্রাইভে অবস্থান নিয়েছিল।



লোকজনের দেওয়া খবর অনুযায়ী টেকনাফ থেকে কক্সবাজারমুখি একটি প্রাইভেটকারের আরোহীর সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বরত পুলিশ ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলী ৪টি গুলি চালায়। পুলিশের দাবি ওই সেনা কর্মকর্তা নিজের পিস্তল বের করেছিলেন পুলিশের প্রতি। ঘটনার পর পরই কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসকরা গুলিবিদ্ধ আরোহী মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদকে মৃত ঘোষণা করেন।



অপরদিকে, চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনার পর শনিবার বিকেলে মেরিন ড্রাইভ রোডের বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র এলাকার ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনীর একটি তদন্ত দল ঘটনা তদন্তে যায়। এসময় এলাকার লোকজন সেনাবাহিনীর তদন্ত দলটিকে দেখে এগিয়ে আসেন। লোকজনের নিকট তদন্ত দলের কর্মকর্তারা শুক্রবার রাতের ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশের বক্তব্যের সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্র ফুটে উঠে।



তদন্তের সময় উপস্থিত একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, স্থানীয় একটি হেফজখানার ইমাম, মুয়াজ্জিন ও দুজন হাফেজ সেনা কর্মকর্তাদের কাছে বলেছেন, শনিবার রাতে প্রাইভেট কার থেকে যে ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে সেটা ছিল একটি নির্মম ঘটনা। তারা জানান, প্রাইভেট কারের ওই আরোহী (মেজর সিনহা) তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ইন্সপেক্টর লিয়াকতের নির্দেশ মতে ওপরে দুই হাত তুলে বলেন-‘বাবা আপনারা অহেতুক আমাকে নিয়ে উত্তেজিত হবেন না। আপনারা আমাকে নিয়ে একটু খোঁজ নিন।



তারা আরো বলেন, মেজর সিনহা এমন কথা বলার সঙ্গে সঙ্গেই কুত্তার বাচ্চা বলেই তাঁর (মেজর সিনহা) বুকে ও গলায় তিনটি গুলি চালায় পুলিশ ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলি। তৎক্ষণাৎ তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এসময় ওই মেজরের গাড়িতে থাকা সঙ্গীর পায়েও একটি গুলি করা হয়। শামলাপুরের ঘটনাস্থল ও তার আশেপাশের এলাকার মানুষের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এ ঘটনার পর এলাকায় পুলিশের বিরুদ্ধে এক রকম চাপা ক্ষোভ তৈরি হয়েছে এবং থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে।



ঘটনাস্থল থেকে মাত্র ১০ গজ দূরে বায়তুন নুর জামে মসজিদ। এই মসজিদের মুয়াজ্জিন মোহাম্মদ আমিন। তিনি ঘটনার পরের দিন অর্থাৎ ঈদের দিন ঘটনাস্থলে তদন্তে যাওয়া সরকারি বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদের কাছে প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আর্মির পোশাক পরিহিত ব্যক্তি হাত উঁচু করে গাড়ি থেকে নেমেছেন। তিনি কোমরে হাত দেওয়ারও সুযোগ পাননি। গাড়ি থেকে নামার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ তাকে সরাসরি গুলি করে। এ দৃশ্য দেখে ভয় ও আতংকে তিনি ঘটনাস্থল থেকে সরে যান।



ঈদের দিন সন্ধ্যা থেকে কোথাও এই মুয়াজ্জিনের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। তার অবস্থান এখন কোথায় তা কেউ বলতে পারছে না। গুলি করার প্রায় দেড় ঘণ্টা পর একটি মিনি ট্রাকে করে সাবেক মেজর সিনহার মরদেহ নিয়ে আসা হয় কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে। স্থানীয় শামলাপুর বাজারের আবদুল হামিদ নামের একজন ফেরিওয়ালা সেনা দলের কর্মকর্তাদের বলেছেন, এটা সাংঘাতিক অন্যায় কাজ হয়েছে। আমাকে যেখানেই নিয়ে যান আমি সত্য কথা বলব। পুলিশ ক্রস ফায়ারের মতো করে একজন জ্যান্ত মানুষকে হত্যা করেছে।



তিনি বলেন, গাড়ি থেকে নামার পর পরই পুলিশ ইন্সপেক্টর লিয়াকত ( এসময় তিনি কানে মোবাইল দিয়ে কার সাথে কথাও বলছিল) গাড়ির আরোহীকে (মেজর সিনহা) বুকে ও গলায় গুলি চালিয়ে দেয়। তার সাথে থাকা ব্যক্তিকেও পায়ে গুলি করেন। কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন শনিবার সকালে এ বিষয়ে জানিয়েছেন, ঈদের সময় দেশে জঙ্গি হামলা হতে পারে মর্মে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং পুলিশ সদর দপ্তরের সতর্ক বার্তা রয়েছে। এ নিয়ে বাড়তি সতর্কতায় রয়েছে জেলা পুলিশ। বিশেষ করে উখিয়া-টেকনাফে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকা হওয়ায় এক প্রকার রেড এলার্টে রয়েছে শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এমনই সময়ে শুক্রবার রাতে শাপলাপুরের একটি পাহাড় থেকে নেমে আসা বোরকা সদৃশ বস্তু পরিহিত লোকজনের খবর শুনে পুলিশ হয়তোবা ডাকাত নতুবা জঙ্গি সন্দেহ করে ওই গাড়িটিকে টার্গেট করে আসছিল।



পুলিশ সুপার আরো বলেন, পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায় যে, নিহত ব্যক্তি সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত মেজর। তিনি কক্সবাজারের হিমছড়ি মেরিন ড্রাইভের একটি হোটেলের দুটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে থাকতেন। তারা একটি ডকুমেন্টারি ফ্লিম করছিলেন বলে জানতে পারেন পুলিশ সুপার। তল্লাশি চালিয়ে ৫০ পিস ইয়াবা,মদ ও গাজা উদ্ধার করা হয়। তাকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যাপারে টেকনাফ থানায় ২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে তার ময়না তদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।



শনিবার (১ আগস্ট) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে। কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছিল। সিনহা রাশেদ খান নিহতের ঘটনায় নিরপেক্ষ তদন্ত হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। রবিবার (২ আগস্ট) সকালে ধানমণ্ডির বাসায় সাংবাদিকদের মন্ত্রী আরো বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে কেউ দোষী প্রমাণিত হলে, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে, রবিবার ২ জুলাই স্থানীয় বাহারছড়া শামলাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ২১জনকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইন্সয়ে সংযুক্ত করা হয়।



বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেজর ( অব:) সিনহা মো: রাসেদ (বিএ-৬৯৩১) হত্যার ঘটনা তদন্তে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন-যুগ্ম সচিব) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান’কে আহবায়ক করে তদন্ত কমিটি পূর্ণগঠন করা হয়েছে। রবিবার ২ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ কমিটি পূর্ণগঠন করা হয়। পূর্ণগঠিত কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ।



এই কমিটিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের একজন প্রতিনিধি সদস্য হিসেবে থাকবেন, যাকে মনোনীত করবেন ১০ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও কক্সবাজারের এরিয়া কমান্ডার। বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে এই কমিটিতে সদস্য হিসেবে থাকবেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি’র মনোনীত একজন প্রতিনিধি।কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহা. শাজাহান আলী পুনর্গঠিত এই তদন্ত কমিটিতে সদস্য হিসেবে থাকবেন, যাকে পূর্বের তদন্ত কমিটিতে আহবায়ক করা হয়েছিলো।



পুলিশের গুলিতে মেজর (অব:) সিনহা মো. রাশেদ খান নিহতের ঘটনা আজ মঙ্গলবার (৪ আগষ্ট) আনুষ্ঠানিক ভাবে তদন্ত শুরু করেছেন তদন্ত কমিটি। তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, দুঃখজনক ঘটনাটির একটি নিরপেক্ষ এবং স্বচ্ছ তদন্ত করা হবে। তবে তদন্ত কমিটি কিভাবে, কি করে এগিয়ে নেবে সেসব বিস্তারিত জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি। মঙ্গলবার ৪ আগস্ট সকালে তদন্ত কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মিজানুর রহমান কক্সবাজারে পৌঁছেন। বেলা ১১টার দিকে কক্সবাজার সার্কিট হাউস সম্মেলন কক্ষে তদন্ত কমিটির অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে এক সমন্বয় সভার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু করেন।



কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে আহ্বায়ক করে পুনর্গঠিত এই তদন্ত কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ। এই কমিটিতে রয়েছেন রামু ১০ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও কক্সবাজারের এরিয়া কমান্ডারের মনোনীত লেফটেন্যান্ট কর্নেল সাজ্জাদ, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ জাকির হোসেন ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শাহজাহান আলী।



কমিটিকে সরেজমিনে তদন্ত করে ঘটনার কারণ, উৎস অনুসন্ধান এবং ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে তার করণীয় সম্পর্কে সুস্পষ্ট মতামত দিতে বলা হয়েছে। ওই ঘটনার পর ২ আগস্ট কক্সবাজারে আসেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক ও অতিরিক্ত ডিআইজি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস) মো. জাকির হোসেন। সোমবার বিকেলে মেরিন ড্রাইভ দিয়ে টেকনাফ পরিদর্শন করেন ডিআইজি। কিন্তু ঘটনার বিষয়ে পুলিশের কোনো কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে কিছুই বলেননি।



এদিকে, পুলিশের দায়ের করা মামলায় সেই নিহত মেজর সিনহা মো. রাশেদ ও গুলিবিদ্ধ সিফাতের ওপরই হত্যার দায় চাপিয়েছে পুলিশ। মামলার আর্জিতে পুলিশ উল্লেখ করেছেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যরা পরেন—এমন পোশাক পরা এক ব্যক্তিসহ দুজন মেরিন ড্রাইভ দিয়ে কক্সবাজারের দিকে যাচ্ছেন, টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাস সে খবর আগেই পেয়েছিলেন। তাঁর নির্দেশেই শামলাপুর পুলিশ চেকপোস্টে যানবাহন তল্লাশির কাজ শুরু হয়। মৃত্যুর আগে একাধিকবার সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান তাঁর পরিচয় দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদেরও দিয়েছিলেন।



মামলার এজাহারে তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ লিয়াকতের পিস্তল থেকে চারটি গুলি ছোড়ার কথা উল্লেখ আছে। তবে তাঁর মৃত্যুর দায় চাপানো হয়েছে সিনহা রাশেদ ও তাঁর সঙ্গে থাকা পায়ে গুলিবিদ্ধ সাহেদুল ইসলাম সিফাতের ওপর। টেকনাফ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নন্দদুলাল রক্ষিত বাদী হয়ে ওই ঘটনায় যে মামলা করেছেন, সেখানেই পাওয়া গেছে এসব তথ্য। মামলার একমাত্র আসামি করা হয়েছে সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খানের সঙ্গে থাকা সাহেদুল ইসলাম ওরফে সিফাতকে। সিফাতের অপরাধ, পরস্পর (সিনহা ও সিফাত) যোগসাজশে সরকারি কাজে বাধা, হত্যার উদ্দেশ্যে অস্ত্র তাক করা ও মৃত্যু ঘটানো।



এর বাইরেও সিনহা মো. রাশেদ খান ও সাহেদুল ইসলামের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনেও মামলা করেছে পুলিশ। উদ্ধার দেখানো হয়েছে ৫০ পিস ইয়াবা ও ২৫০ গ্রাম গাঁজা। টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাস বলেন, ‘আমাকে জানানো হয়েছিল—এ কথা এজাহারে আছে? তাহলে পড়ে বলতে হবে।’ অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সিনহা মো. রাশেদ খানের সঙ্গে থাকা ব্যক্তির বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করা হলেও তদন্তের পর যে দোষী হবে, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।



দায়েরকৃত মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, কমিউনিটি পুলিশের সদস্য নুরুল আমিন (২১) রাত সাড়ে আটটার দিকে ফাঁড়ির ইনচার্জ লিয়াকতকে মুঠোফোনে জানান, কয়েকজন ডাকাত পাহাড়ে ছোট ছোট টর্চলাইট জ্বালিয়ে এদিক–সেদিক হাঁটাহাঁটি করছে। নুরুল আমিন এ কথা নিজামউদ্দিন ও আরও চারজনকে জানান। স্থানীয় মারিশবুনিয়া নতুন মসজিদের মাইক থেকে পাহাড় থেকে ডাকাত নেমে আসছে বলে ঘোষণা দেয়া হয়। ডাকাত প্রতিহত করতে এলাকার সবাইকে একত্র হতে বলা হয়। কিছুক্ষণ পর দুই ব্যক্তি নেমে আসেন। সে সময় ঘটনাস্থলে ২০ থেকে ৩০ জন ছিলেন।



এজাহারে বলা হয়, পাহাড় থেকে নেমে আসা দুজনকে ‌শনাক্ত করার জন্য তাঁদের দিকে মো. মাঈন উদ্দীন নামের (১৯) এক ব্যক্তি তাঁর হাতে থাকা টর্চলাইটের আলো ফেললে সেনাবাহিনীর পোশাক পরা একজন অস্ত্র উঁচিয়ে তাঁকে (প্রকাশ অযোগ্য) গালি দেন। এলাকার লোকজনকে ধাওয়া করলে তাঁরা অস্ত্রের ভয়ে নিরাপদ জায়গায় অবস্থান নেন। পরে তাঁরা দুজন সিলভার রঙের প্রাইভেটকারে করে মেরিন ড্রাইভ হয়ে কক্সবাজারের দিকে রওনা হন। এ খবর নুরুল আমিন নামের এক ব্যক্তি বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জকে জানান। ইনচার্জ লিয়াকত জানান টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপকে। তাঁর নির্দেশে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ লিয়াকত আলীর নেতৃত্বে রাত সোয়া নয়টার দিকে শামলাপুর পুলিশ চেকপোস্টে যানবাহন তল্লাশি শুরু হয়।



এসআই নন্দদুলাল রক্ষিত এজাহারে বলেন, মিনিট বিশেক পর তল্লাশি চৌকির সামনে থামার জন্য প্রাইভেটকারকে সংকেত দেন তাঁরা। কিন্তু গাড়িটি সংকেত অমান্য করে তল্লাশি চৌকি অতিক্রম করার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে ইনচার্জ লিয়াকত আলী তল্লাশি চৌকিতে থাকা ব্লক দিয়ে গাড়িটির গতিরোধ করেন এবং হাত উঁচিয়ে গাড়ির ভেতরে থাকা ব্যক্তিকে বের হতে বলেন। ওই সময় গাড়িচালকের আসনে থাকা ব্যক্তি তর্ক শুরু করেন। তিনি নিজেকে সেনাবাহিনীর মেজর বলে পরিচয় দেন। তাঁর পাশে বসা ব্যক্তিটি গাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন।



মামলায় বলা হয়, তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এ সময় গাড়িচালকের আসনে বসা ব্যক্তিকে গাড়ি থেকে নেমে হাত মাথার ওপর উঁচু করে ধরে দাঁড়াতে বলেন এবং বিস্তারিত পরিচয় জানতে চান। কিছুক্ষণ তর্ক করার পর সেনাবাহিনীর মেজর পরিচয় দেয়া ব্যক্তি গাড়ি থেকে নেমে কোমরের ডান পাশ থেকে পিস্তল বের করে গুলি করতে উদ্যত হন। এসআই নন্দদুলাল রক্ষিত বলেন, ‍‘আইসি (ইনচার্জ) স্যার (লিয়াকত আলী) নিজের ও সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সদের জানমাল রক্ষার্থে সঙ্গে থাকা পিস্তল দিয়ে চারটি গুলি করেন।’ তিনটি গুলি মেজরের গায়ে লাগে এবং ১ টি গুলি তার সাথে থাকা ব্যক্তির পায়ে লাগে।



সেনাবাহিনীর পোশাক সম্পর্কে
মামলার এজাহারে এসআই নন্দদুলাল রক্ষিত আরো বলেন, টেকনাফ মডেল থানা এলাকার বাহারছড়া পাহাড়ি এলাকা। এ এলাকায় আগে থেকেই ডাকাত দলের সক্রিয় অবস্থান ছিল। এ এলাকায় অভিযান চালিয়ে সেনাবাহিনীসহ বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পোশাকসহ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার হয়। বিভিন্ন সময় সেনাবাহিনীসহ বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পোশাক পরে বাড়িঘরে লুটপাট করা হয়েছে বলে ব্যাপক জনশ্রুতি আছে। সিনহা মো. রাশেদের পরনে সেনাবাহিনীর সদস্যরা পরেন—এমন পোশাক থাকায় লোকজন তাঁকে ডাকাত ভেবে ধাওয়া দেন।



এদিকে কক্সবাজার হিল ডাউন সার্কিট হাউজে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক শেষ করে গণমাধ্যমকর্মীদের সামনে কথা বলেন পুনর্গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মিজানুর রহমান। তিনি তদন্তের স্বার্থে গণমাধ্যমকর্মীকে বিস্তারিত কোনো কিছু বলেননি তবে তদন্ত শেষ করে বিস্তারিত জানাবেন বলে তিনি জানিয়েছেন। জানা যায়, সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যাকান্ডে গঠিত তদন্ত কমিটি ইতিমধ্যে কাজ শুরু করে ঘটনাস্থল টেকনাফের শাপলাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে কথা বলেছেন।



জানা গেছে, সাবেক মেজর সিনহা ২০১৮ সালে স্বেচ্ছায় সেনাবাহিনী থেকে অবসরে যান। তিনি অর্থমন্ত্রণালয়ের প্রাক্তন উপসচিব মুক্তিযোদ্ধা এরশাদ খানের ছেলে।গত ৩ জুলাই স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের তিন ছাত্র-ছাত্রীসহ জাস্ট গো নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলের জন্য ভ্রমণ ভিডিও তৈরি করতে কক্সবাজার আসেন তিনি।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

সৌদির ভিসা রিনিউ আবেদনে ১৮ এজেন্সির তালিকা প্রকাশ

সৌদির ভিসা রিনিউ আবেদনে ১৮ এজেন্সির তালিকা প্রকাশ

হাবিপ্রবির হিসাব শাখার পরিচালকের রদবদল

হাবিপ্রবির হিসাব শাখার পরিচালকের রদবদল

শিক্ষক নেতৃত্বের দক্ষতা উন্নয়ন

শিক্ষক নেতৃত্বের দক্ষতা উন্নয়ন

নারায়ণগঞ্জে ১৪৪ ধারা

নারায়ণগঞ্জে ১৪৪ ধারা

বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম কেন? প্রশ্ন আ.লীগ নেতার

বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম কেন? প্রশ্ন আ.লীগ নেতার

জামালপুরে হত্যা মামলায় দুভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড, সাতজনের যাবজ্জীবন

জামালপুরে হত্যা মামলায় দুভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড, সাতজনের যাবজ্জীবন

বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শোক প্রকাশ

বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শোক প্রকাশ

ছেলের জন্মদিনে অপু বিশ্বাসের আবেগঘন স্ট্যাটাস

ছেলের জন্মদিনে অপু বিশ্বাসের আবেগঘন স্ট্যাটাস

বাড়ছে ছুটির মেয়াদ

বাড়ছে ছুটির মেয়াদ

ইডেনের অধ্যক্ষ হত্যা: আসামিরা নিজেদের নির্দোষ বলে অঝরে কাঁদলেন!

ইডেনের অধ্যক্ষ হত্যা: আসামিরা নিজেদের নির্দোষ বলে অঝরে কাঁদলেন!

সারারাত মারধরের পর সকালে কোদাল দিয়ে মাথা ন্যাড়া

সারারাত মারধরের পর সকালে কোদাল দিয়ে মাথা ন্যাড়া

করোনায় অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যু

করোনায় অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যু

অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির রায় ১২  অক্টোবর

অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির রায় ১২ অক্টোবর

বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ৬ রুটের ফ্লাইট চলাচল আগামী ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত বাতিল

বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ৬ রুটের ফ্লাইট চলাচল আগামী ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত বাতিল

বাংলাদেশের করোনায় অক্সফোর্ডের আশঙ্কা ভুল প্রমাণিত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশের করোনায় অক্সফোর্ডের আশঙ্কা ভুল প্রমাণিত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

সর্বশেষ

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সাথে রিভা গাঙ্গুলী দাসের বিদায়ী সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সাথে রিভা গাঙ্গুলী দাসের বিদায়ী সাক্ষাৎ

আমরা মাল মাছ সবই খাই---স্বস্তিকা

আমরা মাল মাছ সবই খাই---স্বস্তিকা

অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধনের কার্যক্রম দ্রুততার সাথে সম্পন্ন করার সুপারিশ

অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধনের কার্যক্রম দ্রুততার সাথে সম্পন্ন করার সুপারিশ

রাজশাহী সিটি মেয়রের উদ্যোগে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ১০৯টি পরিবার পেয়েছে পাকা বাড়ি

রাজশাহী সিটি মেয়রের উদ্যোগে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ১০৯টি পরিবার পেয়েছে পাকা বাড়ি

প্রাচীন যুগে যেভাবে জন্মনিয়ন্ত্রণ করা হতো

প্রাচীন যুগে যেভাবে জন্মনিয়ন্ত্রণ করা হতো

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক প্রকাশ

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক প্রকাশ

ড. কামাল হোসেন ও আসিফ নজরুলকে ঢাবি এলাকায়  অবা‌ঞ্ছিত ঘোষণা:

ড. কামাল হোসেন ও আসিফ নজরুলকে ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত ঘোষণা:

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে গাজীপুরে এক হাজার গাছ বিতরণ

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে গাজীপুরে এক হাজার গাছ বিতরণ

গরীবের হকের আট টন চাল সহ আটক ৩

গরীবের হকের আট টন চাল সহ আটক ৩

নোবেল পুরস্কারের অর্থ, এবার থেকে নোবেলজয়ীরা পাবেন অতিরিক্ত ১,১০,০০০ মার্কিন ডলার

নোবেল পুরস্কারের অর্থ, এবার থেকে নোবেলজয়ীরা পাবেন অতিরিক্ত ১,১০,০০০ মার্কিন ডলার

অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা সহজ : শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা সহজ : শিক্ষামন্ত্রী

টঙ্গীতে আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে ককটেল হামলার প্রতিবাদ মানববন্ধন

টঙ্গীতে আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে ককটেল হামলার প্রতিবাদ মানববন্ধন

প্রধান বিচারপতির শোক অ্যাটর্নি জেনারেলের মৃত্যুতে

প্রধান বিচারপতির শোক অ্যাটর্নি জেনারেলের মৃত্যুতে

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ঢাবি সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের বক্তব্যে সন্ত্রাসবাদের বহিঃপ্রকাশ

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ঢাবি সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের বক্তব্যে সন্ত্রাসবাদের বহিঃপ্রকাশ

১ম শ্রেণির শিশুকে ধর্ষণ

১ম শ্রেণির শিশুকে ধর্ষণ