করোনাভাইরাস: গণমাধ্যম নজরদারির সেই আদেশ বাতিল

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকায় দেশের গণমাধ্যমে এনিয়ে ‘গুজব’ ছাড়ানো হচ্ছে কি না, তার তদারকি করতে আদেশ জারির কয়েক ঘণ্টা পর সমালোচনার মুখে তা বাতিল করেছে সরকার।

বৃহস্পতিবার রাতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রচার) মো. মিজান উল আলম স্বাক্ষরিত এক আদেশে বলা হয়, “কভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধ সংক্রান্ত প্রচারণা/গুজব মনিটরিং করার জন্য জারিকৃত পত্রে ভুলভ্রান্তি থাকায় তা কর্তৃপক্ষের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে বাতিল করা হল।”

এর আগে গত মঙ্গলবার তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়েছিল। এতে বলা হয়, দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রত্যেক কর্মকর্তা দুটি করে টেলিভিশন চ্যানেল মনিটরিং করবেন।

আদেশে বলা হয়েছে, দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের কোনো বেসরকারি টিভি চ্যানেলে করোনাভাইরাস সম্পর্কে অপপ্রচার কিংবা গুজব প্রচার হচ্ছে বলে চিহ্নিত করলে- তা বন্ধ করার জন্য সঙ্গে সঙ্গে মন্ত্রণালয়কে অবহিত করতে হবে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রচার) মো. মিজান উল আলম আই নিউজ বিডিকে বলেন, আগেই গণমাধ্যম মনিটরিং করা হতো। এখন করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। করোনাভাইরাস নিয়ে যেন গুজব ও অপপ্রচার চালানো না হয়- সে জন্য বেসরকারি টেলিভিশনগুলোকে মনিটরিং করার জন্য আমরা কর্মকর্তাদের দায়িত্ব দিয়েছি। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত তারা এ দায়িত্ব পালন করবেন।

এ ছাড়া অনলাইন নিউজপোর্টালগুলো তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) মনিটর করছে বলেও জানিয়েছিলেন অতিরিক্ত সচিব মো. মিজান উল আলম।

মতামত দিন

avatar